alo
ঢাকা, মঙ্গলবার, অক্টোবর ৪, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৮ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

‘প্লিজ এটাকে নেতিবাচকভাবে নেবেন না’: সাবিনা

প্রকাশিত: ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ০৯:৪৫ পিএম

‘প্লিজ এটাকে নেতিবাচকভাবে নেবেন না’: সাবিনা
alo

নিউজনাউ ডেস্ক: ছাদখোলা বাসে করে বিমানবন্দর থেকে বাফুফে ভবনে রাজকীয় সংবর্ধনা দিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল সাফজয়ী নারী ফুটবলারদের। নানা অব্যবস্থাপনা আর কয়েকটি ছোটখাট দুর্ঘটনা পেরিয়ে বাফুফে ভবনে এসে পৌঁছায় বীরাঙ্গনারা। বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনের কিছু ছবি ও ভিডিও ঘিরে তৈরি হয়েছে প্রবল বিতর্ক।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া এসব ছবি ও ভিডিও ক্লিপে দেখা যায়, জাতীয় দলের অধিনায়ক ও হেড কোচকে পেছনে দাঁড় করিয়ে রেখে চেয়ারে বসে বক্তব্য দিচ্ছেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী, বাফুফে সভাপতি, সিনিয়র সহ-সভাপতি। সংবাদ সম্মেলন কক্ষে খেলোয়াড়দের বসার কোনো ব্যবস্থা ছিল না বলেও প্রতিবেদন প্রচার করেছে কয়েকটি সংবাদ মাধ্যম।

বিষয়টি নিয়ে তীব্র ক্ষোভ জানাচ্ছেন ফুটবল সমর্থক ও সংগঠকরা। তাদের অভিযোগ জাতীয় তারকাদের প্রতি চরম অশ্রদ্ধা দেখানো হয়েছে বাফুফের সংবাদ সম্মেলনে।

যাদের কারণে এই আয়োজন, যাদের কৃতিত্ব ঘিরে এত আনন্দ, উৎসব- তাদেরকেই কি না দাঁড়িয়ে থাকতে হচ্ছে! তাদের বসার জায়গা হলো না?

এই ছবি ঘিরেই বিতর্ক। গতকাল রাত থেকে শুরু করে আজ সারাদিন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এই ছবিটি ঘরেই আলোচনার আর সমালোচনার ঝড়। বাফুফে কর্মকর্তা, ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী, সচিবদের ধুয়ে দিচ্ছেন নেটিজেনরা।

কিন্তু সত্যি ঘটনা ভিন্ন। ওই একটি ছবির আগের ঘটনাটা আড়াল করা হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনের শুরুতে বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিনের পাশেই বসেছিলেন অধিনায়ক সাবিনা খাতুন। তার পাশে বসেই সংবাদ সম্মেলনে কথা বলেছিলেন সাবিনা খাতুন। এরপর তিনি চেয়ার ছেড়ে দেন কোচ গোলাম রব্বানী ছোটনকে। সেই চেয়ারে বসেই কথা বলেন কোচ।

সংবাদ সম্মেলনের প্রায় শেষ দিকে সেখানে এসে পৌঁছান ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল এবং ক্রীড়া সচিব। এ সময় স্বেচ্ছায় ছেয়ার ছেড়ে দিয়ে মন্ত্রীকে বসার জায়গা করে দেন কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন।

এই ছবি নিয়ে যখন বিতর্কের ঝড়, তখন নারী ফুটবল দলের অধিনায়ক সাবিনা খাতুন নিজের ফেসবুক পেজে একটি স্ট্যাটাস দেন। সেখানে টি-স্পোর্টসে লাইভ হওয়া সংবাদ সম্মেলনের একটি ভিডিও পোস্ট করে অনুরোধ জানিয়েছেন, বিতর্কিত ছবিটি নিয়ে নেতিবাচক কিছু যেন না ভাবে।

বাফুফের সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগ বলেন, ‘আমরা সবাই ছিলাম। পরিস্থিতি কী ছিল সেটা দেখেন। মন্ত্রী মহোদয় এসেছেন। তারা বসে ছিলেন। সাবিনাও বসা ছিল। সাবিনা সিট ছেড়ে হেড কোচকে জায়গা করে দিয়েছে সেটাও আপনাদের (সাংবাদিকদের) অনুরোধে। আপনারাই বলেছিলেন, হেড কোচ দূরে বসেছেন, তাকে এখানে নিয়ে আসলে ক্যামেরায় পেতে সুবিধা হবে। আপনাদের অনুরোধের পরিপ্রেক্ষিতে তেমনটাই করা হয়েছে।

‘আমরাও বিষয়গুলো বুঝি যে, অনেক সময় অনেক কিছু হয়ে যায়। তবে আমি অনুরোধ করব আমরা যে একটা দারুণ একটা ফ্লো-র মধ্যে রয়েছি সেটা যেন ধারাবাহিকভাবে সম্পন্ন করতে পারি।’

বিষয়টি নিয়ে তুমুল বিতর্কের মধ্যেই বৃহস্পতিবার নিজের ফেসবুক পেজে সংবাদ সম্মেলনের একটি ভিডিও ক্লিপ শেয়ার করেছেন নারী দলের অধিনায়ক সাবিনা খাতুন।

এতে দেখা যাচ্ছে, সাবিনা ও হেড কোচ দুজনে চেয়ারে বসেই বক্তব্য দিচ্ছেন।

সাবিনা খাতুন লিখেছেন, ‘আমার বিনীত অনুরোধ এটাকে নেতিবাচক ভাবে নেবেন না। অনুগ্রহ করে আমাদের জীবনের সবচেয়ে আনন্দের দিনটিকে নেতিবাচক দৃষ্টিতে চিত্রায়িত করে নষ্ট করবেন না! আসুন, ইতিবাচক হই এবং উপভোগ করি! আমি শুধু এটাই বলতে চাই যে আমরা তোমাকে ভালোবাসি (বাংলাদেশ)!’


নিউজনাউ/আরএ/২০২২

X