alo
ঢাকা, শনিবার, আগস্ট ২০, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ৫ ভাদ্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বিপিএল ছেড়ে অন্য লিগে খেলতে পারবে না ক্রিকেটাররা!

প্রকাশিত: ০১ আগস্ট, ২০২২, ০৭:৪০ পিএম

বিপিএল ছেড়ে অন্য লিগে খেলতে পারবে না ক্রিকেটাররা!
alo

নিউজনাউ ডেস্ক: বিশ্বজুড়ে ফ্র‍্যাঞ্চাইজি ভিত্তিক ক্রিকেট টুর্নামেন্ট বেড়ে চলেছে প্রতিনিয়ত। একই সাথে কয়েকটি লিগ হচ্ছে নিয়মিত। আগামী জানুয়ারিতে বিপিএলের (বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ) পরবর্তী আসরের সময়ই যেমন চলবে আরও তিনটি লিগ। তবে বিপিএল রেখে অন্য কোনো লিগে খেলার জটিলতায় যাবে না ক্রিকেটাররা বিশ্বাস বিসিবির (বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড)।

অন্যদিকে বিপিএলের ফ্র্যাঞ্চাইজি মানেই বেক্সিমকো, বসুন্ধরা, জেমকন গ্রুপ এবং অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামালের মেয়ে নাফিসা কামাল। মাঝে গত দুই আসরে বেক্সিমকো, বসুন্ধরা এবং জেমকন গ্রুপ অংশ নেয়নি।

আগামী বিপিএলে কি তারা আবার ফিরে আসবে? এমন গুঞ্জন ক্রিকেট পাড়ায় শোনা যাচ্ছে কয়েক মাস ধরেই। বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দীন চৌধুরী সুজনের কথা শুনে মনে হলো গুঞ্জন নয়, সত্যিই আবার পুরনো ফ্র্যাঞ্চাইজিরা সবাই ফিরে আসতে পারেন বিপিএলের আগামী আসরে। তাতে করে বিপিএল আবারও জমে উঠবে- এ প্রত্যাশা সবার।

আজ মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে উপস্থিত সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপে এমন আভাই দিলেন বিসিবি প্রধান নির্বাহী। তার কথা, ‘অতীতে যারা ফ্র্যাঞ্চাইজি ছিল সবাই আসবে এরকমই আমাদের আশা।’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘আমরা খুব শিগগির ইওআই (এক্সপ্রেস অব ইন্টারেস্ট) পাবলিশ করব এবং আমরা আমাদের বোর্ডের যে গাইডলাইন ফ্র্যাঞ্চাইজি এবং কয় বছরের জন্য এ বিষয়গুলো আমরা ইওআইতে উল্লেখ করে দেবো।’

ফ্র্যাঞ্চাইজিতে বড় ধরনের পরিবর্তন ঘটবে কি না? জানতে চাইলে বিসিবি সিইও বলেন, ‘না ওইরকম স্পেসেফিক কোনো পরিবর্তন নেই, আমাদের (বোর্ডের) যে গাইডলাইন, সেটা অনুযায়ী এক টাইমফ্রেমও দেওয়া থাকবে। এরমধ্যে আমরা চেষ্টা করবো এসব ফাইনাল করে ফেলতে, যাতে যারা ওনার (মালিক) হবেন, তারা তাদের প্রস্তুতিটা নিতে পারেন।’

‘এখন যে লিগটা শুরু হবে নেক্সট এডিশন এটাতে যারা ফ্র্যাঞ্চাইজি হবে তাদের তিন বছরের জন্য দেব, সুতরাং তারা একটা প্রস্তুতি নিতে পারবেন। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ যেহেতু আগামী তিন বছরের জন্য আমরা শিডিউল দিয়ে দিয়েছি সবাই বেটার পজিশনে থাকবে। সবাই যখন ফ্র্যাঞ্চাইজি নেয়, তখন তারা চায় টিমটাকে সবচেয়ে গোছালো হোক একটা কম্পিটিটিভ টুর্নামেন্টে যেহেতু পারটিসিপেট করবে সেটা নিয়েই আসে। এবার তো বেশি সময় পাচ্ছে প্লাস লম্বা সময়ের জন্য দেওয়া হচ্ছে, সুতরাং এরকম আশা তো থাকবেই (সব ঠিকঠাক গুছিয়ে আসার)।’

বিপিএলের সময় অন্য দেশেও লিগ অনুষ্ঠিত হবে। এ সম্পর্কে জানতে চাইলে, নিজামউদ্দীন চৌধুরী সুজন জানান, একই সময় ভিন্ন লিগ হলে যে শুধু বিপিএলের সমস্যা হবে, এমন নয়। অন্য আসরে বাংলাদেশের খেলোয়াড়রাও খেলতে পারবেন না।

তার ব্যাখ্যা, ‘দেখুন আমাদেরও একটা জিনিস মাথায় রাখতে হবে যে মেম্বার (আইসিসি সদস্য) কান্ট্রিগুলো তারা ডোমেস্টিক টি-টোয়েন্টি লিগ চালুর জন্য একটা উইন্ডো খুঁজছে। একই সময় অন্য কোন মেম্বারদের উইন্ডো যদি পড়ে যায়, তাহলে কনফ্লিক্ট করে। তাহলে সবাই কিন্তু সাফার করবে। এমন না যে শুধু আমরাই সাফার করব।’

আমাদের দুই বা তিনজন গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেটার যদি সেখানে খেলার সুযোগ থাকে, সে কিন্তু খেলছে না, আমাদের ডোমেস্টিক লিগে খেলছে। নির্দিষ্ট কোনো নাম আমি বলতে চাই না, তবে বাইরে থেকে এখানে যদি কোন বিদেশি ক্রিকেটার আসে তারা যদি খেলতে চাই খেলবে, আবার আমাদের গুরুত্বপূর্ণ কিছু খেলোয়াড় বাইরে খেলে, তাদেরকেও কিন্তু ওরা মিস করবে। তো এটা যে শুধু আমাদের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে বিষয়টা কিন্তু মোটেও সেটা না।’

বিপিএলের সময় বিদেশি লিগে বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা খেলতে পারবে? বিসিবি সিইও সরাসরি উত্তর না দিলেও বুঝিয়ে দেন, বিপিএলের সময় বিদেশি লিগে বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা খেলতে পারবেন না, কিংবা তারা অনুমতি দেবেন না। তিনি বলেন, ‘বিষয়টা শুধু আমাদের দেশের কথা না, প্রত্যেকটা মেম্বার কান্ট্রিগুলোর মধ্যে একটা আন্ডারস্ট্যান্ডিং আছে, এনওসির বিষয় আছে। এই বিষয়গুলো সবাই মেনে চলে এবং আমি ব্যক্তিগতভাবে মনে করি না, নিজের দেশের একটা কম্পিটিশন রেখে কেউ অন্য দেশে খেলতে যাবে।’


নিউজনাউ/এবি/২০২২

X