alo
ঢাকা, রবিবার, নভেম্বর ২৭, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

চালের দাম বাড়লে আমাদের হাত-পা কাঁপে: পরিকল্পনামন্ত্রী

প্রকাশিত: ১৮ নভেম্বর, ২০২২, ০৪:৫৭ পিএম

চালের দাম বাড়লে আমাদের হাত-পা কাঁপে: পরিকল্পনামন্ত্রী
alo

নিউজনাউ ডেস্ক: চালের দাম যদি বাড়ে, আমাদের হাত-পা কাঁপে বলে মন্তব্য করেছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। তিনি বলেন, বর্তমানে কোনো মানুষ না খেয়ে থাকে না। খাবার আমাদের রাজনীতিতেও একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।

শুক্রবার (১৮ নভেম্বর) রাজধানীর বসুন্ধরা আন্তর্জাতিক কনভেনশন সেন্টারে বাংলাদেশ অ্যাগ্রো প্রসেসরস অ্যাসোসিয়েশন (বাপা) ফুডপ্রোর ৮ম আসরের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, যারা খেতে পেত না, তাদের নিয়ে আগে গুলিস্তানে ভুখা মিছিল হতো। বর্তমানে কোনো মানুষ না খেয়ে থাকে না।

এম এ মান্নান বলেন, খাবার দিয়ে শুরু, খাবারেই জীবন শেষ। জীবনের প্রথম লগ্নে মায়ের দুধ দিয়ে শুরু এবং শেষে পানি খেয়ে বিদায়। এমন একটি মৌলিক বিষয় নিয়ে আমার বেশি বলার নেই। আমাদের দেশের পরিপ্রেক্ষিতে খাবারের একটা আলাদা গুরুত্ব আছে।

তিনি বলেন, আমাদের বর্তমান সরকারের সময়ে গত ১৪ বছরে খাদ্য, বিদ্যুৎ ও  সড়কে একটা বিরাট পরিবর্তন এসেছে। আপনারা ধন্যবাদ দিলে আমরা খুশি, না দিলে আমরা আল্লাহর কাছে জবাব দিতে পারব। তো সেই খাদ্য আপনারা পৌঁছে দিচ্ছেন, এটা দারুণ ব্যাপার। আগে দেশ দখল করা হত। এখন নিয়ম হচ্ছে, বাজার দখল করতে হবে। করতে পারলেই কেল্লাফতে।

মন্ত্রী বলেন, শুধু খাবার দিলেই হবে না, সেটি স্বাস্থ্যকর হতে হবে। শুধু পরিবেশন নয়, বিপণন নয়, খাদ্যের মান ঠিক রাখায় আমাদের অগ্রণী ভূমিকা রাখতে হবে। এই কাজ করায় বাপা এগিয়ে এসেছে। তারা আরও বেশি ভূমিকা রাখবে আমি আশা করি। গবেষণায় আরও এগিয়ে আসুন। আমাদের আরও বেশি উৎপাদন করতে হবে, আরও বেশি আয় করতে হবে।

আয়োজক কমিটির সদস্য প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের চেয়ারম্যান ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আহসান খান চৌধুরী বলেন, বাপার মাধ্যমে আমরা এক বিলিয়ন ডলারের বেশি পণ্য রপ্তানি করছি। আগামী দিনে এটি আরও ছাড়িয়ে যাবে। আমরা ইতোমধ্যে ১৪৫টির বেশি দেশে ছড়িয়ে গেছি। বিশেষ করে মধ্যপ্রাচ্যে আমরা খুবই ভালো করছি, আগামী দিনে আরও প্রসার হবে বলে আমি বিশ্বাস করি। পৃথিবীর প্রত্যন্ত অঞ্চলে বাংলাদেশের পণ্য পৌঁছে যাবে আগামী দিনে। সম্প্রতি আমরা দুবাই মেলা করেছি, এর আগে আমরা ফ্রান্সে মেলা করছি।  

বাপার সাবেক সভাপতি ও এফবিসিসিআই এর সাবেক পরিচালক এস এম জাহাঙ্গীর হোসাইন বলেন, অ্যাগ্রো খাত ইতোমধ্যে এক বিলিয়ন ডলারের মার্কেট পার করেছে। দেশীয় বাজারেও ভূমিকা রেখেছে। এই খাতে আমরা যত বেশী উৎপাদন করতে পারব, গুণগত মান বৃদ্ধি হবে, তত রপ্তানি বাড়বে।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন বাপার সাবেক সভাপতি এ এফ এম ফখরুল ইসলাম মুন্সী, এবারের আয়োজক কমিটির সদস্য মো. শহীদুল ইসলাম। পরে মন্ত্রী ও আয়োজক কমিটির সদস্যরা প্রদর্শনী ঘুরে দেখেন। এ সময় তিনি বিভিন্ন স্টলের সত্ত্বাধিকারী ও কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলেন।

নিউজনাউ/এসএইচ/২০২২ 
 

X