alo
ঢাকা, রবিবার, ফেব্রুয়ারী ৫, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ | ২৩ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশে মুক্তি পাচ্ছে না শাহরুখের ‘পাঠান’

প্রকাশিত: ২৪ জানুয়ারী, ২০২৩, ০৯:৩৫ পিএম

বাংলাদেশে মুক্তি পাচ্ছে না শাহরুখের ‘পাঠান’
alo

নিউজনাউ ডেস্ক: বাংলাদেশে মুক্তি পাচ্ছে শাহরুখ খান অভিনীত বলিউডের মুক্তি প্রতীক্ষিত ছবি ‘পাঠান’- এমন খবরই ক’দিন ধরে। সংবাদ মাধ্যমেও গুরুত্ব পেয়েছে খবরটি। সাফটা চুক্তির আওতায় সিনেমাটি মুক্তি দিতে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ে আবেদন করেছিলেন পরিবেশক ও প্রযোজনা সংস্থা ‘অ্যাকশান কাট এন্টারটেইনমেন্ট’ এর অনন্য মামুন।

সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতেই মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) দুপুরে তথ্য মন্ত্রণালয়ে সংশ্লিষ্টদের নিয়ে হয় বৈঠক। যে বৈঠকের পর একাধিক সদস্য নিশ্চিত করেছেন, খুব সহসাই বাংলাদেশে ‘পাঠান’ মুক্তির অনুমতি পাচ্ছেন না!

তবে ছবিটি বাংলাদেশে মুক্তির বিষয়ে চূড়ান্ত আশাবাদী প্রদর্শক সমিতির উপদেষ্টা সুদীপ্ত কুমার দাশ। ‘পাঠান’ মুক্তির সিদ্ধান্ত সভায় তিনিও উপস্থিত ছিলেন। সেখান থেকে বের হয়ে সুদীপ্ত কুমার বলেন, চলতি মাসে ‘পাঠান’ বাংলাদেশে মুক্তির বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি।

তিনি বলেন, “আজ পাঠান মুক্তি নিয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। মিটিংয়ে দুই ধরনের মতামত এসেছে। কেউ বলেছেন, সিনেমাটি এখন আনা যাবে না। আইনে বাধা আছে। বাধা কী, সেটা হলো- উপমহাদেশের ভাষায় নির্মিত ছবি আমদানি নিষিদ্ধ আছে। সুতরাং এটা এখন আনা যাবে না। আমার যুক্তি ছিলো, ‘ক’ ধারায় আছে ইংরেজি ছবি আমদানি করা যাবে, আর ‘খ’ ধারায় আছে উপমহাদেশের ভাষায় নির্মিত ছবি আমদানি করা যাবে না। আমি তাদের বললাম, এগুলোতো ১৯৭৩ সাল থেকেই চলে আসছে। ২০১৩ সালের জানুয়ারিতে ‘গ’ ধারাটা নতুন সংযোজিত হয়েছে। যার আওতায় কলকাতার অনেক বাংলা ছবি এদেশে আসছে। যুক্তি উত্থাপন করে বলেছি, উপমহাদেশীয় ভাষা বলতে কী বোঝায়- তার একটা ব্যাখ্যাও দেয়া আছে ‘গ’ ধারার আইনে। সেখানে বলা আছে, ভারতীয় উপমহাদেশে প্রচলিত সকল ভাষা। তো সকল ভাষার মধ্যে কি বাংলা পড়ে না? সেটাওতো আমদানি হচ্ছে।”

‘পাঠান’ বাংলাদেশে আমদানির পক্ষে বৈঠকে নিজের যুক্তি উপস্থাপনের কথা উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন,“বাংলা ছবি আসতে পারছে, অন্য ভাষার ছবি আসতে পারবে না- এটাতো ‘গ’ ধারায় লেখা নাই। কোনো বিশেষ ভাষার কথা লেখা নাই। সাফটার আওতায় আপনি একটি সিনেমা পাঠাবেন, আরেকটি আমদানি করতে পারবেন- চুক্তিতে ভাষার কথা স্পষ্ট করে লেখা নাই। সুতরাং ‘পাঠান’ দিতে আপনারা বাধ্য- আজকের বৈঠকে এটা আমি তাদের বলেছি।”

সুদীপ্ত কুমারের দাবি, আজকের বৈঠকে মন্ত্রণালয়ের এডিশনালা সেক্রেটারি ছিলেন। বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি ছিলেন। তারা আমার যুক্তি মনযোগ দিয়ে শুনেছেন। যেহেতু সাফটার আইনটি বাণিজ্য মন্ত্রণালয় করেছে, তারাই এ বিষয়ে সুস্পষ্ট ব্যাখ্যা দিবেন। এজন্য একটু সময় চেয়েছেন।

পরিদর্শক সমিতির এই উপদেষ্টা জানান,‘পাঠান’ বাংলাদেশে মুক্তির জন্য আবেদন করেছে অ্যাকশন কাট এন্টারটেইনমেন্ট এর অনন্য মামুন। শিগগির ‘পাঠান’ মুক্তির সম্ভাবনা আছে কিনা, জানতে চাইলে সুদীপ্ত বলেন, ‘এই মাসে মুক্তি সম্ভব নয়। অনুমতি পেলে ছবিটি এনে সেন্সর করানোর বিষয় আছে। এসব করে আগামি ৩ তারিখ পর্যন্ত লেগে যাবে। আামাদের উদ্দেশ্য হচ্ছে, ৩ তারিখ হোক বা ১০ তারিখ হোক- আমরা ছবিটি রিলিজ করেই ছাড়বো। এই ভেরিকেড ভাঙতে চাই।’

ভারতে বিতর্ক শেষে বুধবার (২৫ জানুয়ারি) মুক্তি পাচ্ছে ‘পাঠান’। অগ্রিম টিকিট বিক্রিতে লেগেছে ধুম। সিদ্ধার্থ আনন্দ পরিচালিত যশরাজ ফিল্মের এই ছবিতে শাহরুখের বিপরীতে অভিনয় করেছেন দীপিকা পাড়ুকোন। এছাড়াও আছেন জন আব্রাহাম।

নিউজনাউ/কেআই/২০২৩

X