alo
ঢাকা, রবিবার, নভেম্বর ২৭, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

কক্সবাজার সৈকত যেন মাছের বাজার, কুড়িয়ে মাছ নিচ্ছেন পুলিশ-পর্যটক সবাই

প্রকাশিত: ১৭ নভেম্বর, ২০২২, ০৫:৫৯ পিএম

কক্সবাজার সৈকত যেন মাছের বাজার, কুড়িয়ে মাছ নিচ্ছেন পুলিশ-পর্যটক সবাই
alo

 

কক্সবাজার প্রতিনিধি: কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত জুড়ে শুধু মাছ আর মাছ। জেলেদের জালে অতিরিক্ত মাছ ধরা পড়ায় সেগুলো সৈকতে ফেলে দিয়ে চলে গেছেন জেলেরা।

বৃহস্পতিবার (১৭ নভেম্বর) ভোর থেকে সৈকতের লাবণী, শৈবাল ও ডায়াবেটিস পয়েন্টে এসব মাছ দেখতে ভীড় জমায় পর্যটক ও স্থানীয়রা।

লাবনী পয়েন্টে গিয়ে দেখা গেছে, পোয়া, ইলিশসহ নানা প্রজাতির জেলেদের ফেলে যাওয়া মাছ নিয়ে যাচ্ছেন স্থানীয়রা।

একটি ফিশিং ট্রলারের মাঝি আবুল কাসেম জানান,আজ জালে প্রচুর মাছ ধরা পড়ছে।সকাল ১০টার দিকে লাবনী ও শৈবাল পয়েন্টের মাঝামাঝি জায়গায় জাল ফেলেছি। জাল টানার সময় আমরা বুঝতে পারছিলাম অনেক মাছ আটকা পড়েছে। আমাদের ট্রলার ছোট থাকায় অনেক মাছ জাল থেকে ছাড়িয়ে সৈকতে ফেলে দিয়েছি। আমাদের মতো আরও অনেকে এমনভাবে মাছ ফেলে যাচ্ছেন।

ট্যুরিস্ট পুলিশ কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক শামীম হোসেন জানান, যখন শুনেছি সৈকতে মাছ পড়ে আছে। তখন আমিও সেখান থেকে এক বস্তা মাছ নিয়েছি। অনেকেই মাছ কুড়িয়ে নিয়েছে। সেখানে পোয়া, ইলিশ ও ছুরিসহ বিভিন্ন ধরনের মাছ ছিল। অতিরিক্ত মাছ জালে ধরা পড়ায় জাল তুলতে পারেননি জেলেরা। তাই তারা মাছগুলো ছেড়ে দিয়েছে। আবার অনেক জেলেরা মাছ নিতে না পেরে সৈকতে ফেলে দিয়েছেন।

তিনি বলেন, স্থানীয়দের পাশাপাশি পর্যটকরাও মাছ কুড়িয়ে নিয়েছেন। আবার অনেকে সেই মাছ সৈকতেই বিক্রি করছেন। অনেকে আবার বস্তায় করেও মাছ নিয়ে যাচ্ছেন।

কক্সবাজার সমুদ্র গবেষণা ইনস্টিটিউটের এক কর্মকর্তা বলেন, সৈকতের শৈবাল পয়েন্টে মাছ ভেসে আসার খবর পেয়ে একটি টিম সেখানে পাঠানো হয়। সেখান থেকে মরা মাছ এবং পানির নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। 

তিনি আরও বলেন, ওই স্থানের জেলেরা দাবি করছেন, ঘের জালে বেশি মাছ আটকা পড়ার কারণে হয়তো কোনো জেলে দলের জাল ছিঁড়ে মাছের মৃত্যু হয়েছে। সেই মাছ জোয়ারের পানিতে ভেসে এসেছে। জেলেদের এই তথ্যও যাচাই করে দেখা হচ্ছে।

এর আগে ১১ নভেম্বর শত শত মরা জেলিফিশ ভেসে এসেছিল।

নিউজনাউ/পিপিএন/২০২২

X