alo
ঢাকা, রবিবার, নভেম্বর ২৭, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

হবিগঞ্জে পুলিশ-বিএনপি সংঘর্ষ:সাবেক মেয়রসহ শতাধিক আহত

প্রকাশিত: ১৬ নভেম্বর, ২০২২, ০৯:৩১ পিএম

হবিগঞ্জে পুলিশ-বিএনপি সংঘর্ষ:সাবেক মেয়রসহ শতাধিক আহত
alo

 

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি: বিএনপির সিলেটের বিভাগীয় সমাবেশের প্রস্তুতি সভাচলাকালে হবিগঞ্জের লাখাইয়ে পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতা-কর্মীদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা সাবেক মেয়র আলহাজ্ব  জিকে গউছসহ শতাধিক বিএনপি নেতাকর্মী আহত হয়েছেন৷ গুলি ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয় পুলিশ। লাখাই উপজেলার বামৈ এলাকায় বুধবার সন্ধ্যার পরে এ ঘটনা ঘটে।

বিএনপি নেতাকর্মীদের দাবি- আগামি ১৯ নভেম্বর শনিবারের সিলেটের বিভাগীয় জনসমাবেশের প্রস্তুতি সভায় পুলিশ বিনা উস্কানিতে হামলা চালিয়েছে৷ এসময় পুলিশের গুলিতে শতাধিকের উপরে বিএনপির নেতাকর্মী আহত হয়েছেন৷

অপরদিকে লাখাই থানার ওসি নুনু মিয়া বলেন, ‘বিএনপি নেতা-কর্মীরা লাখাইয়ের বামৈ বাজারে সহিংসতার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। এ সময় তাদেরকে পুলিশ বাধা বাধা দিলে বিএনপির নেতা-কর্মীরা পুলিশের উপর ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করতে থাকে। এতে ৮ জন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। ‘আত্মরক্ষায় পুলিশ বেশ কয়েক রাউন্ড গুলি ছুড়ে তাদেরকে ছত্রভঙ্গ করে দেয়।’

বিএনপির কেদ্রীয় সমবায় বিষয়ক সম্পাদক ও হবিগঞ্জ পৌরসভার সাবেক মেয়র আলহাজ্ব জি কে গউছ বলেন, আজ সন্ধ্যায় বামৈতে লাখাই উপজেলা বিএনপির নেতাকর্মীদের নিয়ে আগামি ১৯ নভেম্বর শনিবারের বিভাগীয় সমাবেশের প্রস্তুতি সভা করছিলাম৷ এ সময় লাখাই থানার তদন্ত ওসি চম্পক ধাম, এসআই দেবাশিষ ও এস আই রাব্বির নেতৃত্বে পুলিশ সেখানে উপস্থিত হয়ে বিএনপির নেতাকর্মীদের উপর হামলা চালায়। পুলিশ এসময় বিএনপির নেতাকর্মীদের উপর অতর্কিতভাবে গুলি চালায়৷ পুলিশের গুলিতে আমাদের শতাধিকের উপরে নেতাকর্মী গুলিবিদ্ধ হয়েছেন৷ আমিও আহত হয়েছি৷ পরে আমাদের নেতা-কর্মীদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হয়। জি কে গউছ জানান, আহতদের প্রাথমিকভাবে লাখাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ বিভিন্ন হাসপাতাল ও ক্লিনিকে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

লাখাই থানার ওসি নুনু মিয়া জানান, বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে। আহত পুলিশ সদস্যদের লাখাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। পুলিশের উপর হামলাকারী বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও তিনি জানান৷


নিউজনাউ/এসএইচ/২০২২
 

X