alo
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পরিচয়ে প্রতারণা

প্রকাশিত: ০৬ অক্টোবর, ২০২২, ০১:২১ পিএম

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পরিচয়ে প্রতারণা
alo


গাইবান্ধা প্রতিনিধি: গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ী পৌর এলাকার কালিবাড়ী বাজারে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পরিচয়ে ৪৫ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে।

প্রতারণার শিকার হওয়া তিন জনই মিষ্টির দোকানদার। ভুক্তভোগীরা হলেন, সুমন মিষ্টি ভাণ্ডারের মালিক সুমন মিয়া,সুমনা মিষ্টান্ন ভাণ্ডারের মালিক ইউনুছ আলী এবং মামুন মিষ্টান্ন ভাণ্ডারের মালিক মামুন মিয়া। 

ভুক্তভোগী ওই ব্যবসায়ীরা জানান,গতকাল  সন্ধ্যে ৬ টার পর পলাশবাড়ী হাট ব্যবসায়ী সভাপতির মোবাইল ফোনে এক ব্যক্তির সাথে মিষ্টি ব্যবসায়ী সুমন মিয়ার কথা বলে দেন। ফোনের অপর পাশ থেকে কথা বলা ব্যক্তি নিজেকে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হিসাবে পরিচয় দিয়ে বলেন, আপনারা কয়জন মিষ্টি দোকানি রয়েছেন। আমরা আপনাদের দোকানে ও বসতবাড়ীতে অভিযান পরিচালনা করবো এবং এরপর জরিমানা করা হবে। এ সময় আনুমানিক জরিমানার অংক দুই লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা হবে বলে জানান। জরিমানার অংক শুনেই দোকানি ভয়ে মোবাইল কেটে দেন।

এরপর আবার সেই নাম্বার হতে মিষ্টি দোকানীর নাম্বারে ফোন আসে তিনি মোবাইলের কল কেটে দেয়ায় ধমক দিয়ে বলেন, তাড়াতাড়ি জানান আমরা আপনাদের দোকানে ও বাড়ীতে যাবো কিনা? তখন বাজার সমিতির সভাপতি আযম আলী ও তিন মিষ্টি ব্যবসায়ী অনুনয় বিনয় করে প্রতিজনে ১৫ হাজার করে ৪৫ হাজার টাকা পাঠায়। তাদের দেওয়া ৪৫ হাজার টাকার কোন রশিদ না দিলে মিষ্টি ব্যবসায়ীদের মাঝে সন্দেহের সৃষ্টি হয়। পরে তারা থানায় এ বিষয়ে অভিযোগ করেন।

তবে ব্যাপারে হাট বাজার সমিতির সভাপতি গোলাম আযম সাথে মুটোফোনে একাধিকবার কল করেও পাওয়া যায় নি।

পলাশবাড়ী থানার ওসি সাইফুল ইসলাম নিউজনাউ কে জানান, মিষ্টির দোকানে প্রতারণার বিষয়ে তিনি শুনেছেন এবং আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানান তিনি।

নিউজনাউ/আরবি/২০২২

X