কোটালীপাড়ায় বাঁশের বেড়ায় অবরুদ্ধ ৫ পরিবার

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি: গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলায় বাঁশ ও জাল দিয়ে বেড়া দিয়ে ৫টি পরিবারকে অবরুদ্ধ করে রেখেছে প্রতিপক্ষ। এই ৫টি পরিবারের যাতায়াতের দুটি পথ বন্ধ করে দেওয়ায় তারা এখন বাড়ি থেকে বের হতে পারছে না। এ অবস্থায় তারা প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

উপজেলার কুশলা ইউনিয়নের দক্ষিণ মান্দ্রা গ্রামের আব্দুর রহমান শেখ জানান, তাদের গ্রামের আব্দুস সালাম দাড়িয়ার সাথে প্রতিবেশী গোলাম মোস্তফা ও ফুরু শেখের জমি-জমা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। এরই জের ধরে গত মঙ্গলবার দুপুরে আব্দুস সালাম দাড়িয়ার সাথে ফুরু শেখের কথা কাটাকাটি হয়। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে আব্দুস সালাম দাড়িয়ার ছেলে দিপু দাড়িয়া ফুরু শেখকে মারধর করে। এ ঘটনায় বুধবার ভোরে ফুরু শেখের লোকজন আব্দুস সালাম শেখের বাড়ি থেকে বের হওয়ার দুটি পথ বাঁশ ও জাল দিয়ে বেড়া দেয়। এ কারণে ওই বাড়ির ৫টি পরিবার অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছে।

আব্দুস সালাম দাড়িয়া বলেন, বাঁশ ও জাল দিয়ে বেড়া দেওয়ার কারণে বুধবার সকাল থেকে আমরা বাড়ি থেকে বের হতে পারছি না। আমার পরিবারে গর্ভবতী নারীসহ বাড়িতে রোগী রয়েছে। এদের নিয়ে এখন হাসপাতালে যেতে পারছিনা। এই বেড়া না সরালে আমাদের দৈনন্দিন কাজ বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। দ্রুত বেড়া সরানোর জন্য আমরা প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

অভিযুক্ত ফুরু শেখ বলেন, আমি বয়স্ক মানুষ। আমাকে মারধর করার কারণে আমাদের লোকজন দুটি পথে বেড়া দিয়েছে। তবে যে স্থানে বেড়া দেওয়া হয়েছে সে জায়গা দুটি আমার। সালাম আমাকে মারধরের বিচার দিলে আমাদের লোকজন এই বেড়া তুলে দেবে।

কোটালীপাড়া থানার এস আই আব্দুল করিম বলেন, বিষয়টি মৌখিক ভাবে আমাকে আব্দুস সালাম দাড়িয়া জানিয়েছেন। তাদের লিখিত ভাবে অভিযোগ দিতে বলেছি। অভিযোগ পাওয়ার পর পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নিউজনাউ/আরবি/২০২১

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
এছাড়া, আরও পড়ুনঃ
মন্তব্য
Loading...
%d bloggers like this: