NewsNow24.Com
Leading Multimedia News Portal in Bangladesh

মন্ত্রী না দলীয় পদে, দোলাচলে শীর্ষ নেতারা

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

বিশেষ প্রতিনিধি : বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের জাতীয় কাউন্সিলের দিনক্ষণ যতই ঘনিয়ে আসছে আর নিয়ে বর্তমান মন্ত্রীসভার সদস্যদের মাঝে ততই উদ্বেগ ও উৎকন্ঠা বাড়ছে। কেন্দ্রীয় কমিটি থেকে কারা বাদ পড়ছেন, কারা যুক্ত হচ্ছে এই আলোচনা এখন সর্বত্র। বিশেষ করে মন্ত্রিসভার সদস্যদের মধ্য থেকে কারা বাদ পড়ছেন তা নিয়ে নেতাকর্মীদের মধ্যে চলছে জোর আলোচনা। আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী নেতাদের মধ্যে যারা গত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মনোনয়ন পাননি এবং মন্ত্রিসভায় ঠাঁই হয়নি, তাদের সমর্থকদের মুখে ঘুরে ফিরে এই আলোচনাই বেশি শোনা যাচ্ছে।গত নির্বাচনে মনোনয়নবঞ্চিত অনেক নেতা আশা করেছিলেন, তারা টেকনোক্র্যাট কোটায় মন্ত্রিসভায় স্থান পাবেন। কিন্তু সেটাও না হওয়ায় সম্মেলন সামনে রেখে দলের ভালো পদ পাওয়ার প্রত্যাশায় আছেন। তবে দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীদের ধারণা দলের গুরুত্বপূর্ণ পদে থেকেও যারা মন্ত্রিসভায় আছেন, তাদের অনেকেই এবার পদ হারাবেন।
আওয়ামী লীগের একটি সূত্র বলছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আওয়ামী লীগের গুরুত্বপূর্ণ পদে থাকা এক মন্ত্রীকে হাসতে হাসতে বলেছেন, মন্ত্রী থাকবেন, না দলের পদে থাকবেন? সঙ্গে সঙ্গে ওই নেতা মন্ত্রী থাকার আগ্রহ ব্যক্ত করেছেন। আগামী ২০ ও ২১ ডিসেম্বর আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। সম্মেলনের দ্বিতীয় দিন অনুষ্ঠিত হবে কাউন্সিল অধিবেশন। এই কাউন্সিল অধিবেশনেই পরবর্তী নেতৃত্ব নির্বাচিত হবেন। তবে সাধারণত দেখা যায়, আওয়ামী লীগের কাউন্সিলে দলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচনের পর কাউন্সিলররা পুরো নির্বাচনের দায়িত্ব দেন দলের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওপর। এবারও এর ব্যতিক্রম হবে না বলেই মনে করা হচ্ছে।
আওয়ামী লীগের নীতিনির্ধারণী পর্যায়ের নেতারা জানান, মন্ত্রিসভায় থাকা নেতাদের দলের গুরুত্বপূর্ণ পদে রাখতে চান না আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। এতে দলের সাংগঠনিক কার্যক্রম ব্যাহত হয়। আগের সম্মেলনগুলোতেও এটা হয়েছে। ধারাবাহিকতা অনুসরণ করা হলে বর্তমানে মন্ত্রিসভায় আছেন এমন অনেকেই দলের নতুন কেন্দ্রীয় কমিটি থেকে বাদ পড়বেন। তবে সবকিছুই নির্ভর করছে আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সিদ্ধান্তের ওপর। তিনি এ বিষয়ে সরাসরি কিছু না বললেও ইঙ্গিত পাওয়া যায়। বর্তমানে আওয়ামী লীগের ৮৩ সদস্যের কেন্দ্রীয় কমিটিতে থাকা ১২ জন মন্ত্রিসভায় আছেন। দলের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছাড়া আওয়ামী লীগের সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম সভাপতিমণ্ডলী থেকে বর্তমান ৪৮ সদস্যের মন্ত্রিসভায় আছেন মাত্র দুই জন। তারা হলেন- কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের (সাধারণ সম্পাদক-পদাধিকার বলে সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য)।
সম্পাদকমণ্ডলী থেকে মন্ত্রিসভায় আছেন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. দীপু মনি, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ, সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, একেএম এনামুল হক শামীম, ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, অর্থ সম্পাদক টিপু মুনশি, আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট শ ম রেজাউল করিম, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক শেখ মুহাম্মদ আব্দুল্লাহ, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক ফজিলাতুন্নেছা ইন্দিরা, কার্যনির্বাহী সদস্য নুরুল মজিদ হুমায়ুন ও মন্নুজান সুফিয়ান।
এর আগের মেয়াদে দলের কেন্দ্রীয় কমিটিতে থাকা মন্ত্রীর সংখ্যা ছিলো ১৯ জন। দলীয় পদে থেকে ২০১৪ থেকে ২০১৮ মেয়াদের মন্ত্রিসভায় ছিলেন কিন্তু বর্তমান মন্ত্রিসভায় অনেকেই আসতে পারেননি। এরা হলেন- উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য আবুল মাল আব্দুল মুহিত, আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন, সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী, মোহাম্মদ নাসিম, নুরুল ইসলাম নাহিদ, ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন, কার্যনির্বাহী সদস্য মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম ও মির্জা আজম।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আপনার মতামত জানান

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More