রংপুরে বাড়ছে সংক্রমণ, বাড়ছে না আইসিইউ

রংপুর ব্যুরো: করোনা ভাইরাস সংক্রমিত রোগীদের চিকিৎসার জন্য রংপুরে এক বছরেও বাড়েনি আইসিইউ (ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিট) বেড। শুরুতে ২৬টি বেড দিয়ে বিভাগের আট জেলার করোনা আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা সেবা চললেও দ্বিতীয় টেউ মোকাবিলায় মাত্র ১৩টি বেড বাড়ানো হয়েছে।

রোগীর স্বজনসহ বিশিষ্টজনরা বলছেন, একটা বিভাগে করোনা আক্রান্ত মুমূর্ষু রোগীদের চিকিৎসা সেবার জন্য এই সংখ্যা একেবারেই অপ্রতুল। দ্রুত আইসিইউ বেড বাড়ানোর দাবি জানিয়েছেন তারা। সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, গত বছরের এপ্রিলে রংপুর নগরীর পুরাতন সদর হাসপাতাল সংলগ্ন ডেডিকেটেড করোনা আইসোলেশন হাসপাতালে ১০টি এবং ওই সময়ে দিনাজপুর এম. আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১৬টি বেড স্থাপনের মধ্য দিয়ে করোনা রোগীদের আইসিইউ সুবিধা দেয়া শুরু হয় এই বিভাগে।

স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে রংপুরের ডেডিকেটেড করোনা আইসোলেশন হাসপাতালে ৫০টি আইসিইউ বেড স্থাপনের বরাদ্দ দিলেও প্রথম পর্যায়ে ১০টি স্থাপনের পর থেমে যায় বাকিগুলোর কাজ। এক বছর পর আবার করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ায় আইসিইউ বেড বাড়ানোর প্রয়োজনীয়তা দেখা দেয়। ফলে মাত্র ১৩টি বেড বাড়ানো হয় নগরীতে।

এদিকে, বিভাগে প্রতিদিন করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। সংক্রমণের সঙ্গে বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যাও। যত দিন যাচ্ছে ততই করোনার চিকিৎসা সেবা নিয়ে শঙ্কিত হচ্ছেন আক্রান্ত রোগীরা। স্বাস্থ্যবিভাগের তথ্য অনুযায়ী, বিভাগের ৮ জেলার করোনা রোগীদের জন্য ৩৯টি আইসিইউ বেড রয়েছে। এর মধ্যে দিনাজপুরের এম. আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১৬টি, রংপুর ডেডিকেটেড করোনা আইসোলেশন হাসপাতালে ১০টি, রংপুরের কমিউনিটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে একটি ও প্রাইম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দুইটি এবং রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১০টি।

নিউজনাউ/এসএ/২০২১

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
এছাড়া, আরও পড়ুনঃ
মন্তব্য
Loading...
%d bloggers like this: