অনির্ধারিত আত্মসমর্পন

কাজী রফিক

[এক]
অবিশ্বাস্য এক পৃথিবীর মুখোমুখি দাঁড়িয়ে,
অন্তরভেদী মৌনতা গ্রাস করে নিচ্ছে সবকিছু,
শুনশান জনপদ,শব্দের কোলাহল নেই,
স্তব্দ বোবাকান্না বাতাসে ভাসছে হু হু করে।

চারিদিকে অশুভ বার্তা,
সফেদ কাপড়ে মোড়ানো শবের মিছিল,
হৃৎপিন্ডের অস্তিত্তগুলো দূরে বহুদূরে
হারিয়ে যাচ্ছে দুর্বহ বেদনায়,
ক্রমাগত ক্ষিণতর হচ্ছে স্পন্দন।
গৃহবন্দি চোখগুলো জানালায় দাঁড়িয়ে নির্বিকার
চেয়ে থাকে এক টুকরো আকাশের দিকে,
পৃথিবীটা আজ আটকে গেছে একটি অন্তরীপে।

[দুই]
একই দৃশ্যপটে উদ্বিগ্ন অপেক্ষায় বিশ্বটা,
মৃত্যুস্রোত বয়ে চলে উত্তর থেকে দক্ষিনে,
অবরুদ্ধ মানবের আত্মক্রন্দন বাতাসে ভাসে।
এ যেনো রণক্ষেত্রে অনির্ধারিত আত্মসমর্পন
অদৃশ্য এক জৈবঅস্ত্র ছুড়ে দেয়া চিৎ হয়ে
ঝুলে থাকা ক্ষুদ্র বাদুরের কাছে।

[তিন]
অনুশক্তির স্পর্ধিত মগজগুলো শুধু
গর্ভগৃহে হাত পা ছুড়ছে,
মৃত্যুস্রোত ঠেকাতে বিশ্বজুড়ে চলছে মহাযজ্ঞ।
কুজ্ঝটিকা ঘিরে আছে চারিদিকে,
ঘড়িয়াল গুপ্তঘাতকরা ফিরে আসে ভিন্ন রূপে,
বুকের কাছে ঠোকর মেরে মেরে
নিঃশেষ করছে মানবপ্রাণ।

এক মহাকালচক্রে দাঁড়িয়ে আছে বিশ্বটা
অন্তহীন জিজ্ঞাসা নিয়ে,
কবে উন্মোচিত হবে কালজ্ঞান,
কবে পাবে মুক্তি অতিমারীর এই পৃথিবী ?

নিউজনাউ/এসএ/২০২১

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
এছাড়া, আরও পড়ুনঃ
মন্তব্য
Loading...
%d bloggers like this: