স্বাস্থ্যসেবা সহজ করতে নোমানের ‘ডক্টরস গ্যাং’

নিউজনাউ ডেস্ক: স্বাস্থ্যসেবা সহজীকরণ, সময়ের অপচয় রোধ ও দুর্ভোগ কমাতে ‘ডক্টরস গ্যাং’ চালু হয়েছে একটি ওয়েবসাইটটি। ওয়েবসাইটটি নির্মাণ করেছেন রংপুর মেডিকেল কলেজের এমবিবিএস ৪৬তম ব্যাচের শেষ বর্ষের শিক্ষার্থী মো. নোমান ইসলাম নিরব।

ডক্টরস গ্যাংয়ের মাধ্যমে মানুষ সারাদেশের চিকিৎসকদের তথ্য, তাদের সিরিয়াল নম্বরসহ বিভিন্ন রোগ, লক্ষণ, প্রতিকার ও প্রতিরোধ ইত্যাদি বিষয়ক নির্দেশনা ও টেলিমেডিসিন সেবা পাবেন। একই সঙ্গে মেডিকেলের বিভিন্ন পর্যায়ের শিক্ষার্থীরা পাবেন ক্যারিয়ার-বিষয়ক গাইডলাইন-সুবিধা।

তরুণ এই উদ্যোক্তার স্বপ্ন ওয়েবসাইট থেকে উপার্জিত অর্থের শতকরা ৫০ ভাগ দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন বৃত্তি, সেমিনার ও শিক্ষার মানোন্নয়নে ব্যয় করা।

নোমান বলেন, গত বছর বৈশ্বিক মহামারি করোনার প্রভাবে যখন পুরো বিশ্ব টালমাটাল, এ পরিস্থিতিতে বাসায় অলস সময় না কাটিয়ে একাডেমিক পড়ালেখার পাশাপাশি চেষ্টা ছিল সময়ের উপযুক্ত ব্যবহার করে ভালো কিছু করার। তাই সাইটটি নিয়ে কাজ করেছি। এক বছরের মাথায় ডক্টরস গ্যাং ওয়েবসাইটটি সফলতায় রূপ নিয়েছে।

তিনি বলেন গুগল ও ইউটিউব ঘাঁটতে ঘাঁটতে ফ্রন্টেন্ড ডিজাইন, কন্টেন্ট রাইটিং, বিভিন্ন ধরনের কন্টেন্ট মেনেজমেন্ট সিস্টেম, সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন ইত্যাদি বিষয়ে শিখেছি। বর্তমানেও পিএইচপি ও লারাভেলসহ বেশ কিছু বিষয় নিয়ে শিখছি। আপাতত সামান্য খরচে ডক্টরস গ্যাং দাঁড় করেছি। এখনো অনেক কাজ বাকি রয়েছে। ধাপে ধাপে সাইটটিতে অনেক কিছুই সংযোজন করা হবে।

যেসব সেবা মিলবে ‘Doctors Gang’ ওয়েবসাইট থেকে:

সারাদেশের চিকিৎসকদের বিভিন্ন তথ্য, চিকিৎসকদের সিরিয়াল নম্বর, এতে রোগীরা ঘরে বসেই সিরিয়াল নিতে পারবেন। রোগীর প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবাবিষয়ক সচেতনতা ও টিপস, বিভিন্ন রোগ, লক্ষণ, প্রতিকার ও প্রতিরোধবিষয়ক নির্দেশনা। চিকিৎসক ও মেডিকেল শিক্ষার্থীদের জন্য ক্যারিয়ার গাইডলাইন। মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার তথ্য প্রদান এবং টেলিমেডিসিন সেবা।

মেডিকেলে পড়ালেখার সুবাদে নোমান ইসলাম বর্তমানে রংপুর নগরীর সিওবাজার এলাকায় বসবাস করেন। তার গ্রামের বাড়ি দিনাজপুর জেলার বীরগঞ্জ উপজেলার বলরামপুর গ্রামে। বাবা মোছাব্বের হোসেন কৃষক ও মা নূরনেহার বেগম গৃহিণী। তিন ভাইয়ের মধ্যে নোমান সবার বড়।

তিনি ২০১৪ সালে বলরামপুর মাদরাসা থেকে দাখিল এবং ২০১৬ সালে বীরগঞ্জ সরকারি কলেজ থেকে উচ্চমাধ্যমিক পাস করেন। বর্তমানে তিনি এমবিবিএস ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের ৪৬তম ব্যাচের শিক্ষার্থী হিসেবে রংপুর মেডিকেল কলেজে অধ্যয়নরত।

নিউজনাউ/টিএন/২০২১

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
মন্তব্য
Loading...
%d bloggers like this: