করোনায় মৃত ১০ হাজারের মধ্যে ৮০ শতাংশই পঞ্চাশোর্ধ্ব

নিউজনাউ ডেস্ক: করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ও মৃত্যুর সংখ্যায় ধারাবাহিকভাবে রেকর্ড ভাঙা-গড়া চলছে। গতকাল পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা ১০ হাজার ছাড়িয়েছে।করোনায় মৃতদের মধ্যে ৮০ শতাংশের বয়স ছিল পঞ্চাশোর্ধ্ব। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিসংখ্যানে মৃতদের বয়সভিত্তিক এমন চিত্র উঠে এসেছে।

গত বছরের জুন থেকে পরবর্তী তিন মাস দেশে তীব্র ছিল করোনার সংক্রমণ। এরপর সংক্রমণ কমলেও নভেম্বর ও ডিসেম্বরে বাড়ে। জানুয়ারিতে কমলেও ফেব্রুয়ারির শেষে সংক্রমণ বাড়তে থাকে। এর মধ্যে চলতি বছরের মার্চে শুরু হয়েছে করোনার দ্বিতীয় পর্যায়ের সংক্রমণ। প্রথম পর্যায়ের চেয়ে দ্বিতীয় পর্যায়ের সংক্রমণ ভয়াবহ রূপ ধারণ করেছে। এ সময় দৈনিক সুস্থ হওয়ার চেয়ে শনাক্তের সংখ্যা বেশি। মৃত্যুর সংখ্যাও বেড়েছে।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা নয় হাজার ছাড়ায় ৩১ মার্চ। আট হাজার থেকে মৃত্যু নয় হাজার ছাড়াতে সময় লেগেছিল ৬৭ দিন। আর সর্বশেষ এক হাজার মানুষের মৃত্যু হয়েছে মাত্র ১৫ দিনের ব্যবধানে। দেশে চলমান এ মহামারীতে এটিই দ্রুত সময়ে এক হাজার মৃত্যুর রেকর্ড। এর আগে এক হাজার মৃত্যুতে সবচেয়ে কম ছিল ২৩ দিন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য বলছে, গতকাল পর্যন্ত দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ১০ হাজার ৮১ জনের মৃত্যু হয়েছে। মৃতদের মধ্যে ৭ হাজার ৪৯৯ জন পুরুষ ও ২ হাজার ৫৮২ জন নারী। বয়স বিবেচনায় তাদের মধ্যে পঞ্চাশোর্ধ্ব ছিলেন ৮ হাজার ১৫৫ জন, যা মোট মৃতের ৮০ দশমিক ৮৯ শতাংশ। এছাড়া ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ছিলেন ১ হাজার ১২৫ জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে ছিলেন ৪৯৮ জন, ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে ছিলেন ১৯২ জন, ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে ছিলেন ৭১ জন এবং শূন্য থেকে ১০ বছরের শিশুর সংখ্যা ৪০ জন।

বিভাগভিত্তিক হিসাবে মৃতদের ৫ হাজার ৮৫৪ জন ঢাকা বিভাগের বাসিন্দা ছিলেন। বাকিদের মধ্যে ১ হাজার ৮০৮ জন চট্টগ্রামের, ৫৪১ জন রাজশাহীর, ৬২৮ জন খুলনার, ৩০১ জন বরিশালের, ৩৪৬ জন সিলেটের, ৩৯১ জন রংপুরের এবং ২১২ জন ময়মনসিংহের বাসিন্দা ছিলেন।

২০১৯ সালের ৩১ মার্চ চীনের হুবেই প্রদেশের উহানে করোনাভাইরাসের প্রথম সংক্রমণ শনাক্ত হয়। গত বছরের ৮ মার্চ বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শুরু হয়। এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ প্রথম করোনা রোগীর মৃত্যুর খবর জানায় সরকার। যুক্তরাষ্ট্রের জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায় বিশ্বে শনাক্তের দিক থেকে বাংলাদেশের অবস্থান ৩৩তম ও মৃতের সংখ্যা ৩৮তম।

নিউজনাউ/আরবি/২০২১

 

 

 

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
এছাড়া, আরও পড়ুনঃ
মন্তব্য
Loading...
%d bloggers like this: