কিশোরগঞ্জে বিএনপি-পুলিশ সংঘর্ষে আহত অর্ধশতাধিক

নিউজনাউ ডেস্ক: কিশোরগঞ্জে হেফাজতের হরতালের দিন আওয়ামী লীগের অফিস ভাংচুরের পর পাল্টা বিএনপি অফিস ভাংচুর করে আওয়ামী লীগ। পাল্টাপাল্টি ঘটনার জের ধরে মঙ্গলবার (৩০ মার্চ) আবারও রণক্ষেত্র হয়েছে কিশোরগঞ্জ শহর। বিএনপি নেতাকর্মীরা মিছিল নিয়ে শহরে প্রবেশ করার সময় পুলিশের সাথে সংঘর্ষ বাধে। এ ঘণ্টায় অন্তত অর্ধশতাধিক আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ জানায়, হেফাজত ইসলামের হরতালের দিন কিশোরগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে হামলা-ভাঙচুর এবং অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে। রাতে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা জেলা ও উপজেলা বিএনপি কার্যালয়ে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করেন।

এ ঘটনার প্রতিবাদে মঙ্গলবার সকালে বিএনপি নেতাকর্মীরা মিছিল নিয়ে একরামপুর এলাকা দিয়ে শহরে প্রবেশের সময় পুলিশ বাধা দেয়। একপর্যায়ে বিএনপি নেতাকর্মীরা পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়ান। সেই সঙ্গে টায়ার জ্বালিয়ে সড়কে অবরোধ করেন।

এ সময় পুলিশ রাবার বুলেট ও কাঁদানে গ্যাস ছোড়ে। আড়াই ঘণ্টাব্যাপী সংঘর্ষে কিশোরগঞ্জ পৌর বিএনপির সভাপতি আলমগীর, জেলা ছাত্রদলের সহসভাপতি সায়েদ সুমন, স্বেচ্ছাসেবক দলের উবায়দুর রহমান শাকিল, করিমগঞ্জ উপজেলা যুবদলের হানিফ উদ্দিন শিহাবসহ জেলা বিএনপির অর্ধশতাধিক নেতাকর্মী আহত হন। পাশাপাশি পাঁচ পুলিশ ও এক সাংবাদিক আহত হন।

কিশোরগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবু বকর সিদ্দিক বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে জনসমাগমে নিষেধাজ্ঞা থাকা সত্ত্বেও বিএনপির নেতাকর্মীরা শহরের পুরান থানা এলাকায় জড়ো হন। তাদের জড়ো হতে নিষেধ করলে আমাদের ওপর হামলা চালান। এতে পুলিশর পাঁচ সদস্য আহত হন। বর্তমানে শহরের পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

নিউজনাউ/এসএ/২০২১

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
এছাড়া, আরও পড়ুনঃ
মন্তব্য
Loading...
%d bloggers like this: