NewsNow24.Com
Leading Multimedia News Portal in Bangladesh

চট্টগ্রামের রাজনীতিতে মোশাররফ চমক!

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

বিশেষ প্রতিনিধি : বীর চট্টলার নেতা সাবেক মেয়র মহিউদ্দিন আহমেদ চৌধুরী প্রয়াত হবার পর থেকেই চট্টগ্রামের রাজনীতির দাবা সাবেক গণপুর্ত মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেনের হাতেই। অনেক বছর ধরে চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগে আনুষ্ঠানিক কোনও পদে না থাকলেও উত্তর জেলার রাজনীতিতে তিনি এখনও অঘোষিত সম্রাট। তার আঙ্গুলের ইশারাতেই চলে ওই অঞ্চলের রাজনীতি। অনুসন্ধানে জানা গেছে, যে কোনও নির্বাচনে নেতৃত্ব বাছাইয়ের প্রশ্ন উঠলে তখনই সবাই ধরনা দেন তার কাছে। তার আর্শীবাদ যার দিকে তিনিই পান নেতৃত্বের স্বাদ। ৭ বছর পর অনুষ্ঠিত উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে কে আসবেন— সেটাও তিনি নির্ধারণ করে দিয়েছিলেন। কিন্তু সেই পথে না গিয়ে ভোটের চ্যালেঞ্জ নিয়েছিলেন দুইজন। সেখানেও মোশাররফ ম্যাজিকের কাছে ৯৪ ভোট ও ৪২ ভোটের ব্যবধানে হেরেছেন দুজন। আর এ থেকেই বলাবলি মোশাররফ ম্যাজিক চট্টগ্রামের ক্ষমতাসীন দলের রাজনীতির অন্যতম শক্তি।নেতাকর্মীরা মনে করছেন, দীর্ঘদিন উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব সামলে আসা এম এ সালামের তুলনায় নতুন সম্পাদক আতাউর রহমান আতা অনেকটাই অপরিচিত উত্তরের রাজনীতিতে। তবে তিনি জেলা ছাত্রলীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করায় ওই সময়কার ছাত্রনেতাদের ভোট তবে তার পকেটে গেছে কিছুটা। এরপরও সবাই এক বাক্যে স্বীকার করছেন, এম এ সালাম ও আতাউর রহমান আতা মূলত মোশাররফ হোসেনের আশীর্বাদ পাওয়াতে দুজনেই অনায়াসে জিতেছেন। কেননা তৃণমূল ও কেন্দ্রে তার যে প্রভাব সেখানে কেউই বিরাগভাজন হতে চাননি। সাধারণ সম্পাদকের জন্য আগ্রহ প্রকাশ করলেও মোশাররফের মতের বিরুদ্ধে গিয়ে শেষ পর্যন্ত প্রার্থী হননি ফটিকছড়ির এটিএম পেয়ারুল ইসলাম, রাউজানের দেবাশীষ পালিত, রাঙ্গুনিয়ার বেদারুল ইসলাম। তবে ভোটে গেছেন, সভাপতি পদে রাউজানের সাংসদ এ বি এম ফজলে করিম চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক পদে গিয়াস উদ্দীন।
প্রসঙ্গত, তৃণমূল আওয়ামী লীগের প্রত্যক্ষ ভোটে সভাপতি হয়েছেন বর্তমান সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এম এ সালাম আর জেলা পরিষদের সদস্য আতাউর রহমান আতা নতুন সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন। মোট ৩৬৬ জন কাউন্সিলর তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। এর মধ্যে নতুন সভাপতি এম এ সালাম পেয়েছেন ২২৩ ভোট আর তার প্রতিদ্বন্দ্বি রাউজানের সাংসদ ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এ বি এম ফজলে করিম চৌধুরী পেয়েছেন ১২৯ ভোট। অন্যদিকে নতুন সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান আতা পেয়েছেন ১৯৬ ভোট আর প্রতিদ্বন্দ্বি গিয়াস উদ্দিন পেয়েছেন ১৫৪ ভোট।শনিবার (৭ ডিসেম্বর) বিকেল ৩ টায় কাজীর দেউড়ির ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সেন্টারে এই অধিবেশন শুরু হয়ে সন্ধ্যা ৬টার দিকে ভোট প্রদান শেষ হয়। অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আপনার মতামত জানান

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More