বলিউডের বিদ্যার স্মৃতিতে আজও যা উজ্জ্বল

নিউজনাউ ডেস্ক: বলিউডে আগমন তার পরিণীতা’ হয়ে । আর পাঁচাটা মেয়ের মতই এক ঢাল চুল, কপালে টিপ, শাড়িতে তখন সাধারণ মেয়ে ছিলেন বিদ্যা। কিন্তু কিছু বছরের মধ্যেই তার পরিবর্তন যেন চৌখে পড়ার মতো। ‘পরিণীতা’ তখন ‘সিল্ক স্মিতা’। খোলামেলা পোশাক, যৌনতা আর উন্মুক্ত বক্ষভাঁঁজে এক অন্য রকম বিদ্যা। তার অভিনীত দ্য ডার্টি পিকচার’১০০ কোটি ক্লাব’-এ পৌঁছেছে। বিদ্যায় এই সাহসীকতায় মুগ্ধ দর্শক।

এই ছবি দেখে অভিনেত্রীর মা-বাবার অনুভূতি কেমন ছিল সেই গল্প সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে শোনালেন বিদ্যা।

কিন্তু ছবিটি মুক্তির আগে চিন্তায় ছিলেন অভিনেত্রী। ছবি কেমন হবে সে টি নিয়ে নয় । সিল্ক স্মিতা’র চরিত্রে মেয়েকে দেখে তারা কী বলবেন, সেই চিন্তায় ছিলেন অভিনেত্রী। ছবি চলাকালীন স্ক্রিনিং রুমের বাইরে দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করছিলেন বিদ্যা।

তার পর যা ঘটেছিল, অভিনেত্রীর স্মৃতিতে তা আজও উজ্জ্বল। ছবি দেখে বেরিয়ে আপ্লুত ছিলেন বিদ্যার বাবা। হাততালি দিয়ে ভাল লাগার মাত্রা বোঝাতে চেয়েছিলেন মেয়েকে। অন্য দিকে কান্নায় ভেঙে পড়েছিলেন অভিনেত্রীর মা। পর্দায় মেয়ের মৃত্যু দেখে নিজেকে সামলাতে পারেননি তিনি। জানিয়েছিলেন, পর্দায় এক মুহূর্তের জন্য খারাপ দেখায়নি অভিনেত্রীকে।

কিন্তু এই ছবি করার আগে অনেকেই বিদ্যাকে সাবধান করেছিলেন। ছবিটি না করার জন্য অনেকের উপদেশও পেয়েছিলেন তিনি। তবে কারও কথা না শুনেই ‘দ্য ডার্টি পিকচার’-এ সই করেছিলেন বিদ্যা। এই ‘সিল্ক স্মিতা’র চরিত্রে অভিনয়ের সুবাদেই জাতীয় পুরস্কার পেয়েছিলেন বিদ্যা। গেল বছর গণিতবিদ শকুন্তলা দেবীর জীবনচিত্রেও অভিনয় করেছেন তিনি।

নিউজনাউ/এফ এস/২০২১

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
এছাড়া, আরও পড়ুনঃ
মন্তব্য
Loading...
%d bloggers like this: