‘মিরসরাই ইকোনমিক জোনে ৩০ লাখ কর্মসংস্থান হবে’

চট্টগ্রাম ব্যুরো: বাংলাদেশের উন্নয়ন করতে হলে চট্টগ্রামকে গুরুত্ব দিতে হবে। চট্টগ্রাম বন্দর না থাকলে বাংলাদেশের ভাগ্য এত ভালো হতো না বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার মন্ত্রী তাজুল ইসলাম। তিনি বলেন, মিরসরাইয়ে ইকোনমিক জোন হবে, ৩০ লাখ লোকের কর্মসংস্থান হবে। এটি কার্যকরী করার জন্য মানসিকভাবে প্রস্তুত হতে হবে। সবাইকে সহযোগিতা করতে হবে।

শনিবার (২ জানুয়ারি) দুপুরে নগরের র‌্যাডিসন ব্লুতে চীন সরকারের অনুদান হিসেবে পাওয়া এলইডি বাল্ব বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘উন্নত দেশ গড়তে বঙ্গবন্ধু স্বপ্ন দেখছেন, এখন তা বাস্তবায়ন করছেন তার কন্যা। আমি তার সহকর্মী হিসাবে আছি। শিক্ষা, স্বাস্থ্য, খাদ্যের অনেক উন্নতি হয়েছে। এ ধারা অব্যাহত রেখে ৪১ সালে উন্নত দেশ হিসাবে গড়ল তুলবো।

তিনি আরো বলেন, ‘চট্টগ্রামের নালা নর্দমা খাল বিল পরিষ্কার না-হয় তাহলে তো হবে না, এগুলো পরিষ্কার করতে হবে। ওয়াকওয়ে পরিষ্কার থাকবে, মানুষও শ্বাস নিতে পারবে। বাংলাদেশকে বিচ্ছিন্ন ভাবে দেখার সুযোগ নাই। তিনমাসে হালদার মাছ প্রজনন হয়, এখানে উন্নয়নের ব্যাপারে ভ্রান্ত ধারণার কারণে ব্যহত হয় তাহলে তা সবাইকে দায় বহন করতে হবে। বিকওয়ন ডলার ইনকাম করার সুযোগ আছে তার জন্য আমাদের কাজ করতে হবে। আমরা পারস্পরিক যোগাযোগে তা করতে হবে। ভুল বুঝাবুঝি করলে কিচ্ছু হবে না। রামপাল পায়রা বিদ্যুৎ কেন্দ্র নিয়ে অনেক ভুল বুঝাবুঝি হয়েছে৷ ভবিষ্যতে জ্বালানি সংকট থাকবে না।’

স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদের সভাপতিত্বে যুগ্ম সচিব শাকিলা ফারজানার সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন, চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুস সালাম, স্থানীয় সরকারের চট্টগ্রাম বিভাগের পরিচালক মিজানুর রহমান প্রমুখ।

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান
%d bloggers like this: