সিরাজগঞ্জে প্রতিপক্ষের মারপিটে আহত ছাত্রলীগ নেতার মৃত্যু

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জে দলীয় কোন্দলের জেরে প্রতিপক্ষের মারপিটে আহত ছাত্রলীগ নেতা এনামুল হক বিজয় লাইফ সাপোর্টে থাকার ৯ দিন পর মারা গেছেন।

রোববার (০৫ জুলাই) সকাল ১২টার দিকে ঢাকার নিউরো সাইন্স হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। নিহত এনামুল হক বিজয় জেলা ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক ও জামতৈল সরকারী হাজী কোরপ আলী ডিগ্রি কলেজ শাখার সভাপতি এবং কামারখন্দ উপজেলার চালা শাহবাজপুর এলাকার বাসিন্দা।

নিহতের বড় ভাই মো. রুবেল নিউজনাউকে মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, বেলা ১২টার দিকে চিকিৎসকরা এনামুলকে মৃত ঘোষণা করেন। তার মরদেহ সিরাজগঞ্জের কামারখন্দে গ্রামের বাড়িতে আনার প্রস্তুতি চলছে।

গত ২৬ জুন বিকেলে বর্ষীয়ান জাতীয় নেতা সাবেক মন্ত্রী প্রয়াত মোহাম্মদ নাসিমের স্মরণে ছাত্রলীগ আয়োজিত দোয়া মাহফিলে যোগ দিতে আসার পথে শহরের বাজার ষ্টেশন এলাকায় এনামুল হক বিজয়ের উপর হামলা চালিয়ে কুপিয়ে জখম করে প্রতিপক্ষ। তাকে এনায়েতপুর খাজা এনায়েতপুর মেডিকেল কলেজে ভর্তি করা হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে পরদিন ২৭ জুন ঢাকার নিউরো সাইন্স হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানেই আইসিইউতে রেখে তাকে চিকিৎসা দেয়া হয়। ৯দিন লাইভ সাপোর্টে থাকার পর আজ সকালে তার মৃত্যু হয়।

নিহতের বড় ভাই মো. রুবেল বাদী হয়ে জেলা ছাত্রলীগের ২ সাংগঠনিক সম্পাদকসহ সংগঠনের ৫ নেতাকর্মীর নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা ৪/৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। ইতোমধ্যে মামলার এজাহারভুক্ত ৫ জনের মধ্যে ৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়। এদের মধ্যে ছাত্রলীগ নেতা আশিকুর রহমান বিজয়, জাহিদুল ইসলাম ও সাগর জেলহাজতে রয়েছেন। জামিনে মুক্ত রয়েছেন আরেক সাংগঠনিক সম্পাদক আল-আমিন। এ ঘটনার পর গত রোববার কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ মামলার ২ আসামি জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শহরের সয়াগোবিন্দ ভাঙ্গাবাড়ি মহল্লার আল-আমিন ও আরেক সাংগঠনিক সম্পাদক শহরের দিয়ারধানগড়া মহল্লার শিহাব আহমেদ জিহাদকে দল থেকে সাময়িক বহিস্কার করেছেন।

সদর থানার ওসি হাফিজুর রহমান নিউজনাউকে বলেন, মারপিটের ঘটনার পর থেকেই শহরের গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলোতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। যা আজও বিদ্যমান রয়েছে।

নিউজনাউ/এসএ/২০২০

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান
%d bloggers like this: