হাটহাজারীতে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে যুবলীগ আহবায়ককে হত্যার হুমকির অভিযোগ

হাটহাজারী প্রতিনিধি:
চট্টগ্রামের হাটহাজারী নাঙ্গলমোড়া ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ সমর্থিত স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করেছে ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক আলতাফ হোসেন।

বৃহস্পতিবার (২ জুলাই) ইউনিয়নের বাইতুল ফালাহ এলাকায় দলীয় কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে নাঙ্গলমোড়া ইউনিয়ন যুবলীগ।

আইসোলেশন সেন্টার চালু করা নিয়ে ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজুল হক বাবুল যুবলীগ নেতা আলতাফ হোসেনকে হত্যার হুমকি দেয়ার প্রতিবাদে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে ইউনিয়ন যুবলীগ নেতৃবৃন্দরা।

এতে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন যুবলীগ নেতা আলতাফ হোসেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ন-আহবায়ক নুরুল আলম।

লিখিত বক্তব্যে আলতাফ হোসেন বলেন, গত ১৯ জুন করোনা রোগীদের চিকিৎসার্থে তার উদ্যোগে এবং এলাকাবাসীর সার্বিক সহযোগিতায় এলাকায় একটি আইসোলেশন সেন্টার চালু হয়। এতে চেয়ারম্যান ক্ষিপ্ত হয়ে গত ২৬ জুন স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজুল হক বাবুল ইউনিয়ন যুবলীগের সদস্য নাসিরের সঙ্গে ফোনালাপে তাঁর পরিবারকে নিয়ে নোংরা ভাষায় কথা বলে এবং তাকে হত্যার হুমকি দেন।ফোনালাপের রেকর্ডটি পেয়ে তিনি উপজেলা নির্বাহী অফিসার এবং থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন।

অভিযোগের পর কয়েকটি পত্রিকায় প্রতিবেদন হলে চেয়ারম্যান আরও ক্ষিপ্ত হয়ে গত মঙ্গলবার রাতে নাঙ্গলমোড়া ইউনিয়ন পরিষদ নামে একটি ফেসবুক আইডি থেকে তাকে চাঁদাবাজ, মাদক ব্যবসায়ী, দখলবাজ, আইসোলেশন সেন্টারের সব টাকা লোপাট, সন্ধ্যার পর আইসোলেশন সেন্টারে আড্ডা চলে বলে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যে অপপ্রচার চালায়। এছাড়া যুবলীগের রাজনীতির সাথে আমি জড়িত নই, কখনো রাজনীতিই করিনি বলে জানায়।

যা পুরোপুরি মিথ্যা, বানোয়াট ও মনগড়া বলে দাবী করে ওই যুবলীগ নেতা বলেন, আমার নামে কোন মামলা নেই। আমি স্কুল জীবন থেকে আওয়ামী রাজনীতির সাথে জড়িত। এছাড়া আমি যদি যুবলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত না থাকি তাহলে ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক হলাম

বরং ইউপি চেয়ারম্যান কখনও আওয়ামী লীগের রাজনীতি করেনি বলে জানিয়ে আলতাফ হোসেন বলেন, ওনাকে চেয়ারম্যান আমরা বানিয়েছি। তাছাড়া তাকে (চেয়ারম্যান) নিয়ে আওয়ামী লীগের এক নেতা যখন কটুক্তি করেছিল তখন আমরাই এর প্রতিবাদ করেছিলাম।

সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে যুবলীগ নেতা বলেন, তিনি আওয়ামী লীগের সমর্থন নিয়ে ইউপি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেও এলাকায় অবস্থান করে না। তিনি চোরাচালানের মাধ্যমে স্বর্ণ ব্যবসা করার পাশাপাশি সৌদিআরব প্রবাসী স্ত্রীকে দিয়ে তার কক্সবাজারের হোটেল থেকে নিজস্ব গাড়ি দিয়ে ইয়াবা পাচার করে অবৈধভাবে টাকার পাহাড় করেছে।

এদিকে এসব ঘটনার সত্যতা জানতে অভিযুক্ত ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজুল হক বাবুল এর মুঠোফোনে একাধিকবার চেষ্টা করেও সংযোগ স্থাপন করা সম্ভব হয়নি।

নিউজনাউ/পিপিএন

 

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান
%d bloggers like this: