সুনামগঞ্জে কমছে না পানি,দুর্ভোগে লাখো মানুষ

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ সুনামগঞ্জ শহর ও শহরতলির বিভিন্ন এলাকা থেকে এখনো পানি নামে নি । হাঁটু থেকে কোমর সমান পানি শহরের ৭০ ভাগ এলাকার ঘরবাড়িতে।

পানির নীচে , টিউবওয়েল, স্যানিটেশন ও যাতায়াত সড়ক। চৌকির পায়ার নীচে ইটের উপর ইট তুলে মানবেতরভাবে চরম দুর্ভোগের মধ্যেই জীবন যাপন করছেন পানিবন্দী মানুষজন।

নদীর পানির উচ্চতা এখনো না কমায় এবং হাওরগুলো টইটুম্বুর থাকায় এমন কঠিন বিপদে পড়েছেন মানুষজন।
উজানে অর্থাৎ ভারতের মেঘালয় চেরাপুঞ্জিতে প্রচুর বৃষ্টি, একই সঙ্গে সুনামগঞ্জে ভারী বৃষ্টি হওয়ায় পাহাড়ি নদী ও সুনামগঞ্জ শহরের পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া সুরমা নদী টইটুম্বুর হয়ে শহরের বিভিন্ন পয়েন্টে দিয়ে জনপদে ঢুকেছিল পানি। একইভাবে পাহাড়ি নদীগুলোর পানি বিভিন্ন হাওর ও জনপদে প্রবেশ করায় হাওর ও জলাশয় সবকিছুই পানিতে সমান সমান।

গত ৩ দিন বৃষ্টি কিছুটা কমলেও এক ঘণ্টা থেমে,দুই ঘণ্টা বৃষ্টি হচ্ছে। এ কারণে পানি কমছে খুবই ধীরগতিতে। বিপন্ন হয়ে পড়েছেন পানিবন্দী মানুষ। করোনার ভয়সহ নানা কারণে আশ্রয় কেন্দ্রেও কম যাচ্ছেন মানুষ। এই অবস্থায় চরম দুর্ভোগে লাখো মানুষ।

সুনামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র নাদের বখ্ত জানিয়েছেন পৌর এলাকায় ৮০ ভাগ মানুষের ঘরবাড়িতে পানি। তিনি ছোট নৌকায় খাদ্য সহায়তা নিয়ে বাড়ি বাড়ি যাচ্ছেন।

সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ বললেন,সরকারি সহায়তা বন্যা আক্রান্তদের মধ্যে এবং আশ্রয় কেন্দ্রগুলোতে পৌঁছে দিচ্ছেন তারা। একই সঙ্গে করোনার বিষয়টি মাথায় রেখে মাস্ক প্রদান ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলারও পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।

সুনামগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী সাবিবুর রহমান জানান,সুরমা নদীর পানি ০৬ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। ভারতের চেরাপুঞ্জিতে বৃষ্টিপাত কমে গেলে পাহাড়ি ঢলও কমে যাবে। তবে সুনামগঞ্জে থেমে থেমে বৃষ্টিপাত হওয়ার কারণে পানিও ধীর গতিতে নামছে।
নিউজনাউ/এফএফ/২০২০

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান
%d bloggers like this: