গাইবান্ধায় বন্যা পরিস্থিতির আরো অবনতি

গাইবান্ধা প্রতিনিধি: গাইবান্ধায় ব্রহ্মপুত্র, তিস্তা ও ঘাঘট নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। ফলে বন্যা পরিস্থিতি আরো অবনতি হয়েছে এবং নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হয়ে পানিবন্দী হয়ে পড়ছে মানুষ।

জেলায় ৪টি উপজেলার ১৯টি ইউনিয়নে বন্যা কবলিত হয়ে পড়ায় ঘরবাড়িতে পানি ওঠায় এ পর্যন্ত প্রায় ৫০ হাজার মানুষ এখন পানিবন্দী হয়ে পড়েছে।

সোমবার (২৯ জুন) সকাল ৬টায় ব্রহ্মপুত্রের পানি বিপদসীমার ৭৭ সেন্টিমিটার ও ঘাঘট নদীর পানি বিপদসীমার ৫৩ সে.মি. উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়। জেলায় ৪টি উপজেলার সুন্দরগঞ্জের ৭টি ইউনিয়ন, গাইবান্ধা সদরের ৩টি, ফুলছড়ির ৬টি ও সাঘাটার ৩টি ইউনিয়ন বন্যা কবলিত হয়ে পড়ায় ঘরবাড়িতে পানি ওঠায় এ পর্যন্ত প্রায় ৫০ হাজার মানুষ এখন পানিবন্দী হয়ে পড়েছে।

কোথাও কোথাও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পানি উঠেছে। গাইবান্ধা-বালাসীঘাট পাকা সড়কটির আধা কিলোমিটার এলাকা তলিয়ে যাওয়ায় সড়কের উপর দিয়ে এখন নৌকা চলাচল করছে। বাড়িঘরে পানি ওঠায় ওইসব বন্যা কবলিত মানুষ গবাদিপশু নিয়ে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ অথবা উঁচু স্থানে গিয়ে আশ্রয় নিচ্ছে। সেখানে বিশুদ্ধ পানি ও পয় নিষ্কাশনের সমস্যা দেখা দিয়েছে।
নিউজনাউ/এফএফ/২০২০

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান
%d bloggers like this: