খালেদা জিয়ার লন্ডন যাওয়ার পথ সুগম হচ্ছে

নিজস্ব প্রতিবেদক:
বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য লন্ডনে যেতে দেওয়ার ব্যাপারে সরকারের হাইকমান্ডের মনোভাব ইতিবাচক বলে জানা গেছে। শারীরিক অবস্থা বিবেচনা করেই তাকে বিদেশে যেতে দেওয়া হচ্ছে।

সূত্র জানায়, বিদেশে যাওয়ার ব্যাপারে খালেদা জিয়ার পরিবারের সদস্যরা সরকারের উচ্চপর্যায়ে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছেন। সরকারের পক্ষ থেকেও তাঁদের সবুজ সংকেত দেওয়া হয়েছে।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে থেকেই প্যারোলে খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য চেষ্টা করে আসছিল তাঁর পরিবার। শেষ পর্যন্ত গত ২৫ মার্চ তিনি মুক্তি পান। সমঝোতার অংশ হিসেবেই তিনি প্যারোলে মুক্তি পেয়েছেন এবং একই প্রক্রিয়ায় চিকিৎসার জন্য লন্ডন যাবেন বলে জানা গেছে।

খালেদা জিয়ার বিদেশ যাওয়ার বিষয়ে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, ‘খালেদা জিয়া বাসায় থেকে চিকিৎসা নেবেন এবং বিদেশ যেতে পারবেন না—এই শর্তে প্যারোলে মুক্তি পান। তাই তাঁকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে নিয়ে যেতে চাইলে সরকারের অনুমতি নিতে হবে।’

তবে বিদেশে চিকিৎসার জন্য গেলেও খালেদা জিয়ার জীবনযাপন ব্যবস্থার কোনো পরিবর্তন হবে না। প্রকাশ্যে চলাফেরা করতে পারবেন না। কারণ সরকারের শর্ত অনুযায়ী তাঁকে সেখানেও নীরব ভূমিকা পালন করতে হবে।

সূত্র জানায়, প্রকাশ্য কোনো মন্তব্য, বক্তব্য ও বিবৃতি দেওয়া থেকে বিরত থাকার অঙ্গীকারও তাঁর পরিবারের পক্ষ থেকে করা হয়েছে। সব কিছু ঠিক থাকলে এবং পরিবেশ স্বাভাবিক হলেই খালেদা জিয়ার পরিবারের পক্ষ থেকে তাকে লন্ডনে নিয়ে যাওয়ার অনুমতি চাওয়া হবে।

দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর ছয় মাসের জন্য সাজা স্থগিত করে গত ২৫ মার্চ খালেদা জিয়াকে মুক্তি দেন আদালত। বৃহস্পতিবার (২৫ জুন) তার (খালেদা জিয়া) মুক্তির তিন মাস পূর্ণ হয়েছে।

নিউজনাউ/এবি/২০২০

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান