NewsNow24.Com
Leading Multimedia News Portal in Bangladesh

মেয়রের গাফলতিতে বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে অসম্পূর্ণ তথ্য জানছে চট্টগ্রামবাসী

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

বিশেষ প্রতিনিধিঃ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে বিকৃত ও অসম্পূর্ণ তথ্য সম্বলিত ম্যুরাল নির্মাণকে কেন্দ্র করে আলোচনা ও সমালোচনার ঝড় বইছে চট্টগ্রাম নগরীতে। আর এনিয়ে সমাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিশেষ করে বঙ্গবন্ধুপ্রেমীদের মাঝেও নিন্দার ঝড় বইছে।

তাদের অভিযোগ, শিক্ষার্থীবহুল স্কুলগুলোর পাশে এমন একটি ম্যুরালে বিকৃত ও অসম্পূর্ণ তথ্যের উল্লেখ থাকায় বিশেষ করে কোমলমতি স্কুল শিক্ষার্থীরা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে বিকৃত ও অসম্পূর্ণ তথ্য জানছে।

জানা গেছে, গত পহেলা  জানুয়ারি নগরীর জামালখানে এই ম্যুরালের উদ্বোধন করেন সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন এবং আজাদী সম্পাদক এমএ মালেক। এর পরিকল্পনা ও বাস্তবায়নে ছিলেন ২১ নং জামালখান ওয়ার্ডের কাউন্সিলর শৈবাল দাশ সুমন।

স্থাপিত ম্যুরালে জাতির ইতিহাসের সবচেয়ে কলঙ্কময় এই ঘটনা কোনো সাধারণ হত্যা বা গুপ্তহত্যা ছিল না এর কারণও ‘গুপ্তহত্যা’ নয়। অথচ চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের জামালখান ওয়ার্ডে স্থাপিত এ বিশাল ফলকে বঙ্গবন্ধুর পরিচিতি লিখতে গিয়ে জানানো হয়েছে—বঙ্গবন্ধু হত্যার কারণ হল গুপ্তহত্যা’। অথচ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হত্যার কারণ তো নয়ই, এমনকি হত্যার ধরনও কথিত ‘গুপ্তহত্যা’ নয়।

অন্যদিকে বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক জীবন সম্পর্কেও বিকৃত তথ্য উল্লেখ করা হয়েছে ‘বাংলাদেশ দেখবে জামালখান’ শিরোনামের ওই ফলকে। বিষয়টি নিয়ে ইতিহাসপ্রেমীরাও বেশ বিক্ষুব্ধ।

ইতিহাসবিদ মুনতাসীর মামুন বলেছেন, ‘বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যার কারণ ছিল দুটি— এক. যেন তার পরিবারের কাউকে কেন্দ্র করে আবার সেই আদর্শ উজ্জীবিত না হয়, দুই. এমন আতঙ্ক সৃষ্টি যাতে কেউ বঙ্গবন্ধুর পক্ষে দাঁড়াতে সাহস না পায়।’

এ প্রসঙ্গে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর মৃত্যুর কারণ কোনভাবেই গুপ্তহত্যা হতে পারে না। এদেশকে পশ্চাৎপদ করার জন্য একদল বিপথগামী সেনা সদস্য জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে উনাকে সপরিবারে হত্যা করেছে। কারা খুনি এটা সবাই জানে।’

তার মতে, ‘বঙ্গবন্ধু গুপ্তহত্যার শিকার— এই কথা যেই বলুক না কেন তিনি ভুল বলেছেন। উনাদের এই বিষয়ে ব্যাখ্যা দেয়া উচিত। এই ধরনের ভুলের জন্য তাদের ক্ষমা চাওয়াও উচিত বলে আমি মনে করি’।

এবিষয়ে,বঙ্গবন্ধু হত্যাকান্ডের পর চট্টগ্রামে প্রতিরোধ যুদ্ধে অংশ নেওয়া তৎকালীন ছাত্রনেতা ও চট্টগ্রাম ৮ আসনের নবনির্বাচিত সংসদ সদস্য মোছলেম উদ্দিনও একইভাবে বলেন, ‘দেশি-বিদেশি আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্রে বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা হয়েছে। মূলত এর মধ্য দিয়ে তারা বাংলাদেশকেই হত্যা করতে চেয়েছিল। এজন্য সপরিবারে বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা হয়েছে। এটি কোনভাবেই গুপ্তহত্যা নয়।’

অন্যদিকে এটিকে অজ্ঞানতাপ্রসূত ভুল বলে মনে করছেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজতত্ত্ব বিভাগের সাবেক শিক্ষক অধ্যাপক ড. গাজী সালেহ উদ্দিন বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু হত্যাকান্ডকে কেউ গুপ্তহত্যা বলে থাকলে সে মূলত অজ্ঞানতাপ্রসূত কারণে এই ভুল করেছে। এটি মূলত শব্দচয়নের অদক্ষতা। এই ভূলটি সংশোধন করে নেওয়া উচিত।’

এই বিষয়ে কথা বলতে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিনের ব্যক্তিগত মোবাইল ফোনে একাধিকবার কল করা হলেও তিনি কল না ধরায় তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি। এছাড়া স্থানীয় কাউন্সিলর শৈবাল দাশ সুমনকে ফোন করা হলে তার মোবাইলটি বন্ধ পাওয়া যায়।

(তথ্য ও সূত্র : চট্টগ্রাম প্রতিদিন)

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আপনার মতামত জানান

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More