আদিবাসী উচ্ছেদের প্রতিবাদে আমরণ অনশন

এ.এইচ.এম.আরিফ, কুষ্টিয়া থেকেঃ কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে মহিলা কলেজের বাণিজ্য বিভাগের শিক্ষক তুহিন বিশ্বাসের বিরুদ্ধে বাগদি আদিবাসী সম্প্রদায়ের বসতবাড়ি উচ্ছেদের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

বসতবাড়ী উচ্ছেদের প্রতিবাদে মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল ও বাড়ির সামনে রাস্তায় আমরণ অনশন করছে বাগদি আদিবাসীরা।

বুধবার (১৫ জানুয়ারি) দুপুর ১২ টার দিকে তুহিন বিশ্বাস তার লোকজন নিয়ে বসতি উচ্ছেদ করতে গেলে আদিবাসীরা সংঘবদ্ধ হয়ে রুখে দাঁড়ালে তুহিন বিশ্বাস দৌড়ে পালিয়ে যায়।

এসময় পৌরসভার ৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর এস এম রফিক আদিবাসীদের বসতি উচ্ছেদের প্রতিবাদে মানববন্ধন শেষে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি এম এ মুহাইমিন আল জিহানের অফিসের সামনে অবস্থান নেয়।

ভুক্তভোগীরা জানান, বুজরুখ দুর্গাপুর মৌজার এসএ ৩/৩৪০ ও আরএস ৩৪০ নং খতিয়ানের ৮ টি দাগে প্রায় ৮ বিঘা সম্পত্তি যার মালিক বাংলাদেশ সরকার পক্ষে ডেপুটি কমিশনার। উক্ত সম্পত্তি আতাউর রহমান সুজন, কুমারখালী সরকারী কলেজ ও আদিবাসীরা বরাদ্দ নিয়ে ভোগদখল করে আসছে।

বিলুপ্ত বাগদি সম্প্রদায়ের প্রায় ৪০০ পরিবার উক্ত জমির এসএ ৯১৩,৯১৪,৯১২ ও ৯৪৫ দাগের জমি সরকারীভাবে বরাদ্দ নিয়ে বসবাস করছে। উল্লেখিত জমি তুহিন বিশ্বাস জোরপূর্বক দখল করতে গেলে উল্লেখিত ঘটনার সৃষ্টি হয়।

এবিষয়ে তুহিন বিশ্বাসের সাথে মুঠোফোনে জমি দখলের বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে সে জানায়, আমি কাগজ পত্র নিয়ে কথা বলবো।

সরকারী জমি কিভাবে ক্রয় করেন সে বিষয়ে প্রশ্ন করলে তুহিন বিশ্বাস তা কৌশলে এড়িয়ে যায়।

 

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান