বিমান ভূপাতিত করার খবরে ইরানে বিক্ষোভ

নিউজনাউ ডেস্ক: ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনির পদত্যাগের দাবিতে বিক্ষোভ শুরু হয়েছে। দেশটির সেনাবাহিনী ইউক্রেন এয়ারলাইন্সের যাত্রীবাহী বিমান ভুল করে ভূপাতিত করার স্বীকারোক্তি দেওয়ার পর তেহরানের রাস্তায় নেমে আসে বিক্ষোভকারীরা।

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে চরম উত্তেজনার মুহূর্তে বিমানটিকে উড্ডয়নের অনুমতি কেন দেওয়া হলো তা নিয়ে প্রশ্নও তুলেছেন বিক্ষোভকারীরা।

১৭৬ আরোহী নিয়ে ইউক্রেনীয় একটি বিমানকে ‘অনিচ্ছাকৃতভাবে’ ভূপাতিত করার বিষয়টি স্বীকার পরদিন (শনিবার) দেশটির রাজধানী তেহরানে কয়েকশ বিক্ষোভকারী রাস্তায় নেমে আসে।

বিবিসি বাংলার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, তেহরানে শরীফ ও আমির কবির নামে অন্তত দুটি বিশ্ববিদ্যালয়ের বাইরে জড়ো হয় শিক্ষার্থীরা। প্রথমে তারা দুর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্তদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে সেখানে জড়ো হয়। কিন্তু সন্ধ্যা নাগাদ তা বিক্ষোভে রূপ নেয়।

শনিবার ইরানের ফার্স বার্তা সংস্থা জানিয়েছে, তেহরানে জমায়েত হয়ে ‘উগ্র’ স্লোগান দেওয়া শিক্ষার্থীদের ছত্রভঙ্গ করেছে ইরানের পুলিশ। বিমান ভূপাতিত করায় দায়ীদের বিচারের মুখোমুখি করার দাবিও জানায় বিক্ষোভকারীরা।

তবে ইরানের ভুলে চলতি সপ্তাহে ইউক্রেনীয় যাত্রীবাহী বিমানটি বিধ্বস্ত হয়েছে বলে স্বীকার করে দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাভেদ জারিফ বলেছেন, এতে গভীর অনুশোচনা, ক্ষমা ও শোকপ্রকাশ করেছে তার দেশ।

এক সংবাদবিজ্ঞপ্তিতে তারা দাবি করেছে, ফের যাতে এমন ভুল না ঘটে, তা নিশ্চিত করতে সশস্ত্র বাহিনীর পর্যায়ে অভিযান প্রক্রিয়ায় মৌলিক সংস্কার আনা হবে।

নিউজনাউ/২০২০

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান