উত্তর ও দক্ষিণে ১৪ মেয়র প্রার্থী

মাহমুদুল হাসান: দেশের বড় রাজনৈতিক দুই দল আওয়ামী লীগ ও বিএনপিসহ অন্য দলগুলোর প্রার্থীদের মনোনয়নপ্রত্র জমা দেয়ার মধ্য দিয়ে ঢাকা দুই সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হওয়ার আভাস মিলেছে।
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর সিটি নির্বাচনের মধ্য দিয়ে নৌকা ও ধানের শীষ দুই প্রতীক নির্বাচনের মাঠের লড়াইকে জমিয়ে তুলছে। ফের চায়ের কাপে ঝড় উঠছে ভোটের রাজনীতি নিয়ে।
ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সঙ্গে বিএনপির পাশাপাশি বিরোধী দল জাতীয় পার্টি, বাম দল সিপিবি, ইসলামী দল ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ছাড়াও এনপিপি, পিডিপি, গণফ্রন্ট ও বাংলাদেশ কংগ্রেসের প্রার্থী রয়েছে।
ঢাকার দুই সিটিতে মেয়র পদে ১৮ জন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছিলেন। কিন্তু ৯ টি রাজনৈতিক দলের ১৪ জন মেয়র প্রার্থী তাদের মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। তবে এবার মেয়র পদে স্বতন্ত্র কোনো প্রার্থী নেই।
ইলেকট্রনিং ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) বিরোধিতা এবং নিরপেক্ষ ভোট নিয়ে সংশয় প্রকাশ করলেও শেষ পর্যন্ত ভোটের লড়াইয়ে থাকার কথা বলছেন বিএনপির প্রার্থী।
সবার জন্য সমান সুযোগ তৈরি করে নিরপেক্ষ ভোট হবে বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

দুই সিটি কর্পোরেশন মেয়র, সাধারণ ও সংরক্ষিত কাউন্সিলরের পক্ষ থেকে ২২৬০টি মনোনয়নপত্র সংগ্রহ হয়। তবে শেষমেষ জমা দিয়েছেন ১০৩৯ জন প্রার্থী।
বাছাই ও প্রার্থিতা প্রত্যাহার শেষে সেই প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর সংখ্যা কত দাঁড়ায় ৯ জানুয়ারি তা নিশ্চিত হওয়া যাবে।

ঢাকা উত্তর সিটিতে ভোটার সংখ্যা ৩০ লাখ ৩৫ হাজার ৬২১ জন। এই সিটির ৫৪টি সাধারণ ওয়ার্ডে ৩৭৪ প্রার্থী মনোনয়ন জমা দিয়েছেন। এই সিটির ১৮টি সংরক্ষিত নারী ওয়ার্ডের বিপরীতে মনোনয়ন জমা পড়েছে ৮৯টি। অন্যদিকে ঢাকা দক্ষিণ সিটিতে ভোটার সংখ্যা ২৩ লাখ ৬৭ হাজার ৪৮৮ জন। এই সিটির ৭৫টি সাধারণ ওয়ার্ডের বিপরীতে মনোনয়ন জমা পড়েছে ৪৬০টি এবং ২৫টি সংরক্ষিত নারী ওয়ার্ডের বিপরীতে মনোনয়ন জমা পড়েছে ১০২টি।

ঢাকা উত্তরে মেয়র পদে মনোনয়নপত্র জমা দিলেন যারাঃ
১) মো. আতিকুল ইসলাম (আওয়ামী লীগ)
২) তাবিথ আউয়াল (বিএনপি)
৩) জিএম কামরুল ইসলাম (জাপা)
৪) আহম্মেদ সাজেদুল হক রুবেল (সিপিবি)
৫) শেখ মো. ফজলে বারী মাসউদ (ইসলামী আন্দোলন)
৬) মো. আনিসুর রহমান দেওয়ান (এনপিপি)
৭) শাহীন খান (পিডিপি)

ঢাকা দক্ষিণ মেয়র পদে মনোনয়নপত্র জমা দিলেন যারাঃ
১) শেখ ফজলে নূর তাপস (আওয়ামী লীগ)
২) ইশরাক হোসেন (বিএনপি)
৩) মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন (জাপা)
৪) মো. আবদুর রহমান (ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ)
৫) বাহরানে সুলতান বাহার (এনপিপি)
৬) আব্দুস সামাদ সুজন (গণফ্রন্ট)
৭) আকতার উজ্জামান ওরফে আয়াতুল্লাহ (বাংলাদেশ কংগ্রেস)

ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই ২ জানুয়ারি। প্রার্থিতা প্রত্যাহার ৯ জানুয়ারি, প্রতীক বরাদ্দ হবে ১০ জানুয়ারি। প্রচার শেষে ভোটগ্রহণ হবে ৩০ জানুয়ারি।

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান