NewsNow24.Com
Leading Multimedia News Portal in Bangladesh

দুই বাংলার আড্ডা গানে গানে

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

নিউজনাউ ডেস্কঃ কাঁটাতারের এপাড় থেকে/ দেখছি তুমি আছোই সুখে/ রাজত্বটা তোমার শাসনে/ বসে আছো সিংহাসনে- ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তের এদিকটায় বসে গিটার হাতে এভাবেই আক্ষেপের সুর ছুঁড়ে দিলেন ঢাকার সংগীতশিল্পী আসিফ আলতাফ।

এর জবাবে পশ্চিমবঙ্গের কিংবদন্তি নচিকেতাও কম নন। সুরে সুরে বললেন- দূর থেকে মনে হয়/ সুখেই আছি আমি বোধয়/ সুখ আসলে কার চরণে/ জানে খোদা জানে ভগবানে…!

এমন অসাধারণ সওয়াল-জবাবের মধ্যদিয়ে দুই বাংলার দুজন শিল্পীর কণ্ঠে উঠে এলো বাংলাভাগের আফসোস আর সীমান্তে কাঁটাতারের ক্ষোভ। ‘কাঁটাতার’ নামে বিশেষ এই গানটি সম্প্রতি প্রকাশ হয়েছে ইউটিউবে। কণ্ঠের পাশাপাশি যার কথা ও সংগীত পরিচালনা করেছেন আসিফ আলতাফ নিজেই। সহশিল্পী হিসেবে এতে কণ্ঠ দিয়েছেন নাচিকেতা। গানটি প্রযোজনা করেছে ‘চিরকুট’ সদস্য পাভেল আরিনের বাটার কমিউনিকেশন।

গানটি তৈরি ও প্রকাশ প্রসঙ্গে আসিফ আলতাফ বলেন, ‘প্রচণ্ড আত্মবিশ্বাসী, কখনও অহংকারী, বেপরোয়া সত্যভাষী একজন সঙ্গীতজ্ঞ নচিকেতা। সেজন্যই বহুদিন ধরে একটা গান মাথায় ঘুরছিল তাকে নিয়েই। তিনি গাইবেন নাকি গাইবেন না এটা ছিল সবচেয়ে বড় সংশয়। বন্ধু পাভেল আরিন গানটি শোনার সাথে সাথেই সিদ্ধান্ত নিলো- আমি আর নচিকেতা নাকি একসাথে গাইবো সেটা! আশ্চর্যের ব্যাপার হচ্ছে, গাইবার জন্য আলোচনা থেকে শুরু করে রেকর্ডিং শেষ হওয়া পর্যন্ত নচিকেতার আন্তরিকতা আর পেশাদারিত্ব ছিল লক্ষণীয়। আমার লেখা-সুরে, আমায় সঙ্গে নিয়েই তিনি গাইলেন- এটা আমার জন্য একটা বিশাল পাওয়া। তবে এর থেকেও আমি বেশি অবাক হয়েছি তার সাহসিকতা দেখে। তার অবস্থানে বসে এমন লিরিক উচ্চারণ করতে আমি নিজেও দ্বিধা করতাম। এই সাহসী উচ্চারণ নচিকেতাকে দিয়েই সম্ভব।’

‘কাঁটাতার’ গানটির ভিডিও নির্মাণ করেছেন মোমিন বিশ্বাস। এতে দেখা যাচ্ছে আসিফ-নচিকেতা দু’জনকেই। দু’জনার পাশাপাশি ভিডিওতে রয়েছে কথার রেশ ধরে পঙ্কজ বর্মণের প্রাসঙ্গিক চিত্রকর্ম।

শ্রোতাদের উদ্দেশ্যে আসিফ বলেন, ‘গানটি আমার মনের কথা, ক্ষোভের কথা। সঙ্গে নচিকেতার সাহসিকতা, ভালো লাগলে সাথেই থাকবেন বিশ্বাস করি।’

 

নিউজনাউ/এসকে/২০২২

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আপনার মতামত জানান

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More