গিরগিটির দোষ কী

সুব্রত আচার্য: বরাবরই আমার কাছে গাছ, মাঠ, ক্ষেত পাহাড় পছন্দের। সমুদ্র কোনও দিন আমাকে মনে-প্রাণে আত্মায় ছুঁতে পারেনি। তবুও পৃথিবীর তিনভাগ জল একভাগ স্থল এই সত্যটিও মাথা নত করে স্বীকার করতেই হবে।

যেমন জীবনের কিছু সত্যকেও স্বীকার করে নিতেই হয়।

২০২০ সাল থেকেই আমরা সবাই বড্ড অস্থির, অসহায় এবং এক কেন্দ্রিকও বটে। হাঁপিয়ে উঠেছি সবাই। দিন-বদলের স্বপ্ন নিয়ে রোজ আমরা ঘুম থেকে জেগে উঠি। আবার শুতে যাওয়ার আগেও মনে থাকে বদলের আশাই।

কেউ কেউ বলছেন, ২০২২ সালটি নাকি আরও খারাপ যাবে। আশঙ্কা থাকাটা স্বাভাবিক; দুবছরে অভিজ্ঞতা ভালো নয় কারোরই। তবুও আশায় মানুষকে বাঁচিয়ে রাখে; তবে অবশ্যই সেটা ইতিবাচক আশা বা প্রত্যাশা।

রোজ আমরা মানুষের সাথে নানা রকম সম্পর্কে জড়িয়ে যাই। রোজ বিশ্বাস করি কাউকে না কাউকে। রোজ আমাদের মন ভাঙে বিশ্বাস ভঙ্গ হয়। জীবনচক্র মানেই তো এমন মানভাঙা একদিকে গড়া অন্যদিকে।

মানুষ আমরাই পারি আজ যাকে বুকে নিয়ে ভালোবাসার উষ্ণতায় ভরিয়ে দিই কাল তাকে পিঠ দেখিয়ে চলে যাই। আজ যাকে নিয়ে চায়ের কাপে ধোয়া উড়াই কাল কাপ ধোয়া এক থাকলেও চেয়ারের মানুষটা বদলে যায়। যে ঠোঁটে কারো হৃদয়ে স্বপ্ন এঁকে দিই সেই ঠোঁট দিয়েই তাকে অস্বীকার করি। সত্যি মানুষ আমরাইতো পারি এসব করতে … গিরগিটির দোষ কী?

ওকে ওর কাজ করতে দিন!

সুব্রত আচার্য: ব্যুরো প্রধান, সময় টেলিভিশন, কলকাতা।

নিউজনাউ/আরবি/২০২২

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান