মেঘালয়ে কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিলেন ১২ বিধায়ক

নিউজনাউ ডেস্ক: পশ্চিমবঙ্গের ক্ষমতাসীন দল তৃণমূল কংগ্রেস ভারতের মেঘালয়ের রাজনীতিতে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। রাজ্যটির প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেসের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী মুকুল সাংমা-সহ ১২ বিধায়ক যোগ দিয়েছেন তৃণমূলে।

বুধবার রাতে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দেন তারা। আর এতেই মেঘালয়ের প্রধান বিরোধী দলে পরিণত হয়েছে তৃণমূল। যা কংগ্রেসের জন্য নিঃসন্দেহে বড় ধাক্কা। বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

আজ ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় আরেক রাজ্য ত্রিপুরায় পৌর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। আর এর আগের রাতেই উত্তর-পূর্বের এই পাহাড়ি রাজ্যে সংগঠন খুলে ফেলল তৃণমূল শিবির। শুধু তাই-ই নয়, একইসঙ্গে পরিণত হয়েছে মেঘালয়ের প্রধান বিরোধী দলে।

সংবাদমাধ্যমগুলো বলছে, এই মুহূর্তে মেঘালয়ে মোট ১৮ জন কংগ্রেস বিধায়ক রয়েছেন । এর মধ্যে ১২ জনই দল ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন। এর ফলে মেঘালয়ে কংগ্রেসের বিধায়ক সংখ্যা ১৮ থেকে কমে হবে ৬ জন। সেই হিসেবে মেঘালয়ে প্রধান বিরোধী দল হতে যাচ্ছে তৃণমূল। বৃহস্পতিবারই মেঘালয়ে তৃণমূলের নতুন পথচলা শুরু হচ্ছে। ইতোমধ্যে দলবদলের সিদ্ধান্ত মেঘালয় রাজ্যের স্পিকারকে জানানো হয়েছে।

২০১০ সাল থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত মেঘালয়ের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন মুকুল সাংমা। বর্তমানে তিনি রাজ্যটির বিরোধী দলনেতা। পূর্ব গারো পাহাড়ের প্রভাবশালী নেতা মুকুল দল ছাড়ায় মেঘালয়ে কংগ্রেসের বড় ক্ষতি হবে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকেরা।

বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে গত মে মাসে পশ্চিমবঙ্গের ক্ষমতায় তৃতীয়বারের জন্য ক্ষমতায় ফিরেছে তৃণমূল কংগ্রেস। এরপর থেকেই সর্বভারতীয় রাজনীতিতে নিজেদের মাটি শক্ত করতে মনোযোগ দিয়েছে তৃণমূল শিবির।

আর এমন পরিস্থিতিতে রাজ্যের বাইরে তৃণমূল নেত্রী মমতার সফর মানেই নতুন কিছু প্রাপ্তি। এবারের দিল্লি সফরেও একের পর এক জাতীয় স্তরের নেতা, বিশিষ্ট ব্যক্তি তৃণমূলে যোগ দিচ্ছেন।

দিল্লি সফরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত আরও শক্ত করতে যোগ দিয়েছেন ভারতের জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক তারকা ক্রিকেটার ও সাবেক কংগ্রেস নেতা কীর্তি আজাদ, হরিয়ানার সাবেক কংগ্রেস সাংসদ অশোক তানওয়ার এবং সাবেক জেডিইউ সাংসদ পবন বর্মা। এর মাঝেই কংগ্রেসকে আরও দুর্বল করে তৃণমূলের হাত ধরলেন মেঘালয়ের ১২ বিধায়ক।

নিউজনাউ/এসএম/২০২১

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান