টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সপ্তম আসরের মূলপর্ব শুরু আজ

নিউজনাউ ডেস্ক: টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সপ্তম আসরের মূলপর্ব শুরু হচ্ছে আজ শনিবার (২৩ অক্টোবর) থেকে। নিজ নিজ যোগ্যতায় প্রথমপর্ব থেকে সুপার টুয়েলভে উঠে এসেছে চারটি দল। এই ৪ দলসহ মোট ১২ দল নিয়ে শুরু বিশ্বকাপের মূলপর্বের খেলা। সেরা বারোর লড়াইয়ের প্রথমদিনে মোট দুটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। দিনের প্রথম ম্যাচে বিকেল চারটায় মুখোমুখি হবে অস্ট্রেলিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকা। আর রাত ৮টায় অপর ম্যাচে লড়বে ২০১৬ সালের রোমাঞ্চকর ফাইনালিস্ট ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও ইংল্যান্ড।

দুটি ম্যাচই দেখা যাবে বিটিভি, গাজী টিভি, টি-স্পোর্টস, পিটিভি স্পোর্টস ও স্টার স্পোর্টসে।

অস্ট্রেলিয়া এবং দক্ষিণ আফ্রিকা এখন পর্যন্ত আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ম্যাচে মোট ১৮ বার মুখোমুখি হয়েছে। এর মধ্যে জয়ের হারটা অস্ট্রেলিয়ারই বেশি। ৭টি ম্যাচে হারের বিপরীতে ১১টিতেই জিতেছে অজিরা। কিন্তু আইসিসি কর্তৃক প্রদত্ত টি-টোয়েন্টি র‌্যাঙ্কিংয়ে অস্ট্রেলিয়ার চেয়ে এগিয়ে রয়েছে প্রোটিয়ারা। ২৫০ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে পাঁচ নম্বরে অবস্থান করছে দক্ষিণ আফ্রিকা। অন্যদিকে দুই ধাপ পিছিয়ে থাকা অস্ট্রেলিয়ার রেটিং পয়েন্ট ২৪০।

এদিকে রাত ৮টার ম্যাচে মুখোমুখি হওয়া ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবং ইংল্যান্ডের মধ্যকার ম্যাচে এগিয়ে রাখা যাচ্ছে না কাউকেই। কেননা র‌্যাঙ্কিংয়ে ইংল্যান্ড দল ঢের এগিয়ে থাকলেও পরস্পরের মুখোমুখিতে ইংলিশদের পেছনেই রেখেছে ক্যারিবিয়ানরা।

ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসির প্রদত্ত র‌্যাঙ্কিংয়ে ২৭৮ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে সবার উপরে অবস্থান করছে ইংল্যান্ড। অন্যদিকে ২৩৪ রেটিং নিয়ে নয় নম্বরে অবস্থান উইন্ডিয়ানদের। কিন্তু দুদলের মুখোমুখিতে এগিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এখন পর্যন্ত ১৮টি আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলে ১১টিতে জিতেছে ক্যারিবীয়রা। বাকি ৭টিতে জয় ইংল্যান্ডের।

আবার টি-টোয়েন্টি ফরম্যাট মানেই যেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের জয় জয়কার। এখন পর্যন্ত ছয়বার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এর মধ্যে সর্বোচ্চ দুইবারের চ্যাম্পিয়ন কাইরন পোলার্ডরা। অন্যদিকে একবার ফাইনাল জিতেছে ইংল্যান্ড দল।

এবারের বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভে যাওয়া নিয়ে শঙ্কা তৈরি হয়েছিল বাংলাদেশের। সব শঙ্কা পেরিয়ে সপ্তমবারের মতো বিশ্বকাপের মূলপর্বে লড়তে যাচ্ছে বাংলাদেশ। মজার ব্যাপার হলো ২০০৭ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শুরু হওয়ার পর বিশ্বের যে ৬ জন খেলোয়াড় সবগুলো আসরেই খেলেছেন, তাদের তিনজনই বাংলাদেশের। তারা হলেন- সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। বাকি তিনজন হলেন ক্রিস গেইল, ডোয়াইন ব্রাভো ও রোহিত শর্মা।

এখন দেখার বিষয় সাকিব, মুশফিক ও মাহমুদউল্লাহদের অভিজ্ঞতায় ঝুলিতে ভর করে এবং তরুণদের জ্বলে ওঠার সম্ভাবনায় ভেলায় ভেসে বাংলাদেশ এবারের বিশ্বকাপে কতোদূর যেতে পারে।

নিউজনাউ/আরবি/২০২১

 

 

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
1
আপনার মতামত জানান