সংঘর্ষে নিহত ২, বাবাকে থানায় আটকের প্রতিবাদে ছাত্রলীগ নেতার বিষপান

চট্টগ্রাম ব্যুরোঃ চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে বসতবাড়ির সীমানা সংক্রান্ত জটিলতায় দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষে ২ জন নিহত হয়েছেন। এই ঘটনায় দুজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে পুলিশ। বাবাকে আটকের প্রতিবাদে থানায় এসে বিষপান করেছেন দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের সহ সম্পাদক রাসেল ইকবাল।

বুধবার (২০ অক্টোবর) দুপুর ২ টার দিকে বাঁশখালী পৌরসভার জলদি এলাকায় মুনছুরিয়া বাজারের পাশে এই ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে জড়ানোরা সম্পর্কে আত্মীয় হন। বাড়ির সীমানা প্রাচীরে পানি নিষ্কাশনের একটি পাইপ নিয়ে এই সংঘর্ষ হয় বলে পুলিশ জানায়।

এ ঘটনায় আরও ৩জন আহত অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

নিহতরা হলেন, জলদি এলাকায় মুনছুরিয়া বাজারের আবুল কাশেমের ছেলে আব্দুল খালেক (৩৪) এবং কামালের ছেলে সোলতান মাহমুদ টিপু। তিনি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

সংঘর্ষে আহতরা হলেন খালেকের ভাই মো. কামাল উদ্দিন, চাচাতো ভাই মঞ্জুর আলম এবং মো. বাহাদুর।

বাঁশখালী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আজিজুল হক নিউজনাউকে বলেন, সংঘর্ষে জড়ানোরা সম্পর্কে চাচাতো- জ্যাঠাতো ভাই।
দুপুরে তাদের বাড়ির সিমানায় পানি নিষ্কাশনের একটি পাইপ নিয়ে মারামারি হয়। ছুরিকাহত হয়ে আব্দুল খালেকের মৃত্যু হয়। এসময় দু’পক্ষের আরও ৫ থেকে ৬ জন আহত হন।

তিনি আরো বলেন, ঘটনার পর আমরা ঘটনাস্থল থেকে দুজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হেফাজতে নিয়েছি। তবে তাদের নাম বলা যাচ্ছে না আপাতত।’

আটক দুজনের মধ্যে একজনকে নির্দোষ দাবী করে তার ছেলে ছাত্রলীগ নেতা রাসেল ইকবাল থানার মূল ফটকে এসে বিষপান করার খবর পাওয়া গেছে। রাসেল দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের সহ সম্পাদক।

চমেক হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আলাউদ্দিন তালুকদার নিউজনাউকে বলেন, বাঁশখালীতে সংঘর্ষের ঘটনায় চারজন আহতকে হাসপাতালে আনা হয়। তার মধ্যে টিপু চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

নিউজনাউ/পিপিএন/২০২১

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান