বাংলাদেশে হামলা পরিকল্পনাকরী নওরোজ কারাগারে

নিউজনাউ ডেস্ক: বাংলাদেশে জঙ্গি হামলার পরিকল্পনাকারী এক অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী যুবককে কারাদণ্ড দিয়েছেন দেশটির আদালত। তার নাম নওরোজ আমিন। এর আগেও জঙ্গি সন্দেহে পাঁচ বছর চার মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছিলো তাকে।

২০০৬ সালে নওরোজকে সিডনি ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্টে আটক করে পুলিশ। সে সময় তার কাছে থাকা পেনড্রাইভে সন্ত্রাসী গোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের (আইএস) ম্যাগাজিন ও সন্ত্রাসী কাজে ব্যবহার করার মতো আরও উপকরণ পাওয়া যায়।

তার বিরুদ্ধে জঙ্গি হামলা চালানোর পরিকল্পনা করার অভিযোগ আনা হয়। এ অভিযোগে তার সর্বোচ্চ সাজা হতে পারতো যাবজ্জীবন কারাদণ্ড।

আদালতে শুনানিতে বিচারককে শোনানো হয় নওরোজ কোডওয়ার্ডে বাংলাদেশে কারো সঙ্গে কথা বলছেন। সেখানে তিনি কোডওয়ার্ডে রান্নার ক্লাস ও বাংলাদেশে রেস্তোরাঁ খোলা নিয়ে আলাপ করেন। তবে আসলে তিনি কিভাবে বিস্ফোরক তৈরি করতে হয় সে বিষয়ে আলাপ করছিলেন।

আদালতে তিনি স্বীকার করেন যে, বিস্ফোরক সম্পর্কে ধারণা আছে বাংলাদেশে এমন কাউকে তিনি খুঁজছিলেন, কিন্তু অস্ট্রেলিয়াতে হামলা চালানোর কোনো পরিকল্পনা তার ছিল না।

বিচারক পিটার গার্লিং রায় ঘোষণা করতে গিয়ে বলেন, নওরোজের লক্ষ্য ছিল বাংলাদেশ সরকার। নওরোজ মনে করতেন মুসলিমদের যারা রক্ষণশীল ধারায় বিশ্বাসী, তারা বাংলাদেশে বৈষম্যের শিকার হচ্ছেন।

বিচারক আরও বলেন, নওরোজ সহিংসতার পথ বেছে নেন ঠিকই, কিন্তু কোনো সহিংস কর্মকাণ্ডে তিনি এখনও জড়াননি। টুইন টাওয়ারে সন্ত্রাসী হামলার পর থেকে কিশোর বয়সে একজন মুসলিম হিসেবে নওরোজকে সমাজে কোন চোখে দেখা হয়েছে, এর সঙ্গে তার চরমপন্থা বেছে নেওয়ার বিষয়টি জড়িত বলে উঠে আসে শুনানিতে।

নিউজনাউ/এসএ/২০২১

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান
%d bloggers like this: