ভালো ঘুমের জন্য যা করণীয়

নিউজনাউ ডেস্ক: অনেকেরই ভালো ঘুম না হওয়ার সমস্যা রয়েছে। দেরিতে ঘুমানো আবার স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। ভালো ঘুম হলে আমাদের মন সতেজ থাকে এবং আমাদের কর্মদক্ষতা বাড়ে। প্রত্যেক ব্যক্তি জীবনে কখনও না কখনো ঘুমের সমস্যায় পড়েছেন। আমাদের শরীরের মেলাটোনিন নামক একটি হরমোন আছে যা আমাদের ঘুমের সঙ্গে জড়িত। সাধারণত আলোর উপস্থিতিতে মেলাটোনিনের ক্ষরণ কমে যায়।

এক গবেষণায় দেখা গেছে, পর্দার আলোর কারণে শরীরে ঘুমের জন্য দায়ি হরমোন মেলাটোনিনের নিঃসরণ ক্ষতিগ্রস্ত হয়। আলো যত বেশি উজ্জ্বল হয়, মেলাটোনিনের উৎপাদন ততটাই কমে।

ওই গবেষণার জ্যেষ্ঠ গবেষক, মনোরোগবিদ্যা ও মনুষ্য আচরণবিদ্যার অধ্যাপক মেরি সারস্কাডন বলেন, “রাতে সামান্য আলো যেমন: স্ক্রিনের আলো ঘুমের উপর ক্ষতিকর প্রভাব ফেলার জন্য যথেষ্ট।”

ভালো ঘুমের জন্য কিছু নিয়ম-কানুন মেনে চলা জরুরি। তবেই ঘুমের সমস্যা ধীরে ধীরে কমে যাবে। আজকে কিছু নিয়ম-কানুন জানিয়ে দিবো।

১/ রাতে ঘুমানোর আগে ভারি খাবার এড়িয়ে চলুন।

২/ বিকেলের পর থেকে চা-কফি পান করবেন না। চা বা কফিতে যে উপাদান আছে যা রাতে ঘুমের ব্যাঘাত ঘটায়।

৩/ রাতে ঘুমানোর আগে এক গ্লাস হালকা গরম দুধ খেতে পারেন।

৪/ দিনের বেলা এক ঘণ্টা ব্যায়াম করলে রাতে আপনাকে ভালো ঘুম এনে দেবে।

৫/ প্রতিদিন একই সময়ে ঘুমাতে যাবেন এবং একই সময় ঘুম থেকে উঠবেন। দৃঢ়ভাবে আপনি এই নিয়মটা অনুসরণ করুন।

৬/ অন্ধকার এবং শব্দমুক্ত রুমে সহনীয় তাপমাত্রা আপনি ঘুমাতে যেতে পারেন।

৭/ ঘুম ছাড়া কখনই অন্য কাজে আপনার বিছানা ব্যবহার করবেন না। বিছানায় শুয়ে কোন এক্সসাইটিং মুভি বা ভিডিও দেখবেন না।

৮/ বিছানায় শোয়ার পর ডিপ ব্রিথিংএর মাধ্যমে আপনার শরীলকে শিথিল করতে পারেন। এর মাধ্যমে বেশি অক্সিজেন সমৃদ্ধ রক্ত যখন আপনার ব্রেইন প্রবেশ করবে তখন তা আপনার ব্যস্ত ব্রেইনকে রিলাক্স করবে , ফলে ভাল ঘুম হবে ।

৯/ ৭/৮ ঘন্টা ঘুমাতে পারেন। ঘুম না আসলেও ৭/৮ ঘন্টার বেশি সময় বিছানায় শুয়ে থাকবেন না।

১০/ প্রগ্রেসিভ মাস্কুলার রিলাক্সেশন (PMR) ঘুমের জন্য ভাল একটা ব্যায়াম হতে পারে।

নিউজনাউ/এসজিএম/২০২১

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান
%d bloggers like this: