এবার ইসরায়েলি স্পাইওয়্যার পেগাসাসের নজরদারিতে ফ্রান্সের ৫ মন্ত্রী

নিউজনাউ ডেস্ক: এবার ফোনে আড়ি পাতার কাজে ব্যবহৃত ইসরায়েলের গোপন নজরদারি সফটওয়্যার পেগাসাস ফ্রান্সের অন্তত পাঁচজন মন্ত্রীর মুঠোফোনেও পাওয়া গেছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কিছু সূত্র ও একটি গোপন গোয়েন্দা নথির বরাতে অনুসন্ধানী ওয়েবসাইট মিডিয়াপার্ট এসব তথ্য জানিয়েছে। খবর দ্য গার্ডিয়ানের।

পেগাসাস প্রজেক্ট নিয়ে অভিযোগ ওঠার পর গুরুত্বপূর্ণ কয়েকজন ফরাসি মন্ত্রীর ফোনে ওই সফটওয়্যার থাকার এ খবর প্রকাশিত হলো। তবে মন্ত্রীদের মুঠোফোনগুলো হ্যাক করা হয়েছে, এর পক্ষে কোনো শক্ত প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

এনএসও গ্রুপের দাবি, গুরুতর অপরাধ ও সন্ত্রাস প্রতিরোধের বাইরে পেগাসাস সফটওয়্যারকে কাজে লাগানোকে তারা এর অপব্যবহার হিসেবে বিবেচনা করে। প্রতিষ্ঠানটি আরও দাবি করেছে, কোনো ধরনের অপব্যবহার ধরতে পারলে তারা ব্যবস্থা নিয়ে থাকে। এই প্রযুক্তির মূল লক্ষ্য মানবাধিকার রক্ষা। যার মধ্যে রয়েছে মানুষের জীবনযাপনের অধিকার, নিরাপত্তা, ব্যক্তির চলাচলের স্বাধীনতা।

ইতিমধ্যে গত বৃহস্পতিবার রাতে এক বিবৃতিতে এনএসও বলেছে, ‘ফরাসি কর্মকর্তাদের নিয়ে আমরা আমাদের ইতিপূর্বে দেওয়া বক্তব্যে অটল রয়েছি। তাঁরা পেগাসাসের লক্ষ্যবস্তুতে নেই ও কখনো ছিলেন না। আমরা অজানা সূত্রের বরাতে প্রকাশিত খবর নিয়ে কোনো মন্তব্য করতে চাই না।’

এদিকে মিডিয়াপার্ট বলেছে, পেগাসাস ম্যালওয়্যারের উপস্থিতি পাওয়া গেছে ফ্রান্সের শিক্ষা, আঞ্চলিক সংহতি, কৃষি, আবাসন ও বহির্বিশ্ববিষয়ক মন্ত্রীদের মুঠোফোনে। ২০১৯ সালে তাঁদের ফোনে স্পাইওয়্যারটি দিয়ে নজরদারি শুরু করা হয়। তবে সেই সময় তাঁরা সবাই বর্তমান পোস্টে ছিলেন না। এলিসি প্রাসাদে প্রেসিডেন্ট মাখোঁর কূটনৈতিক উপদেষ্টাদের একজন সফটওয়্যারটির নিশানা হন বলে জানিয়েছে মিডিয়াপার্ট।

নিউজনাউ/আরবি/২০২১

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান