ডিউটি ছাড়া পুলিশ অস্ত্র রাখতে পারবে না

নিউজনাউ ডেস্ক: পুলিশ সদস্যদের ডিউটি শেষে নিয়ম অনুযায়ী অস্ত্র অস্ত্রাগারে জমা দিতে হয়। কিন্তু অনেক পুলিশই সে নিয়ম মানতেন না। ডিউটি শেষ হওয়ার পরেও তারা রিভলবার, পিস্তল বা গুলি সাথে রাখেন।

অভিযোগ উঠেছে, কিছু সদস্য এসব অস্ত্র ও গুলি অপরাধের কাজে ব্যবহার করছেন। এমন একাধিক ঘটনার প্রমাণ পাওয়ায় পুলিশ সদর দপ্তর মনে করছে, অস্ত্র বহনের ক্ষেত্রে সদস্যদের আরও সতর্ক হওয়া প্রয়োজন। সে কারণে নির্দিষ্ট কর্মঘণ্টার বাইরে কোনো পুলিশ সদস্যকে অস্ত্র বহন ও ব্যবহার না করতে আদেশ জারি করা হয়েছে।

পুলিশ সদর দপ্তরের এআইজি মো. কামরুজ্জামান বলেন, এসআই ও এএসআইরা অস্ত্র কীভাবে ব্যবহার করবেন, তার একটা নির্দেশিকা আছে। ইউনিট প্রধানেরা প্রয়োজন অনুযায়ী অস্ত্র ইস্যুর অনুমতি দেন। কারও মানসিক অবস্থা যদি অস্ত্র ব্যবহারের জন্য সুস্থ মনে না হয়, তাহলে তাঁকে অস্ত্র দেওয়া হয় না। নির্দিষ্ট নিয়মের মধ্য দিয়ে অস্ত্র ব্যবহার করতে দেওয়া হয়।

পুলিশ সদর দপ্তরের আদেশে বলা হয়েছে, এখন থেকে সহকারী সাব-ইন্সপেক্টর (এএসআই) ও সাব-ইন্সপেক্টরের (এসআই) নামে ইস্যু করা সরকারি ক্ষুদ্র আগ্নেয়াস্ত্র ২৪ ঘণ্টা নিজ হেফাজতে রাখতে পারবেন না। দায়িত্বের শুরুতে অস্ত্র গ্রহণ করবেন এবং দায়িত্ব পালন শেষে সংশ্লিষ্ট অস্ত্রাগারে জমা দেবেন।

পুলিশ সদর দপ্তরের একটি সূত্র বলছে, গত জুলাইয়ে কুষ্টিয়ায় গুলি করে তিনজনকে হত্যার ঘটনায় অভিযুক্ত সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) সৌমেন রায়ের কর্মস্থল ছিল খুলনা। কিন্তু তিনি তাঁর সরকারি পিস্তল ও দুটি ম্যাগাজিনে ১২টি গুলি সঙ্গে নিয়ে কুষ্টিয়ায় আসেন। এরপর কথা-কাটাকাটির পর একে একে তিনজনকে গুলি করেন। এ ঘটনার পর রাজধানী ঢাকা ও এর বাইরের বিভিন্ন জেলায় পুলিশের নামে ইস্যু করা সরকারি অস্ত্র চুরি, ছিনতাই ও হারিয়ে যাওয়ার এবং অপব্যবহার নিয়ে বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উদ্বেগ প্রকাশ করেন। এরপরই এমন আদেশ জারি করা হয়।

 

নিউজনাউ/এসজিএম/২০২১

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান