কফিল আহমেদের সুরের হুংকার; সিআরবিকে বাঁচাতেই হবে

চট্টগ্রাম ব্যুরোঃ চট্টগ্রামের ফুসফুস খ্যাত সিআরবি রক্ষা আন্দোলনে সামিল হয়েছেন গণসংগীত শিল্পী কফিল আহমেদ। ঢাকা থেকে এসে তিনি আন্দোলনে সংহতি জানিয়ে গেয়েছেন গান। এসময় সুরের হুংকার তুলে তিনি জানিয়েছেন ‘সিআরবি কে বাঁচাতেই হবে’।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সিআরবি সাত রাস্তার মোড়ে সাংস্কৃতিক প্ল্যাটফর্ম ‘যতদূর গলা যায়’ এই প্রতিবাদী অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

সিআরবি রক্ষায় ‘কফিল আহমেদ এর গান’ শিরোনামে এই আয়োজন শুরু হয় ‘যতদূর গলা যায়’ এর গান দিয়ে। তারপর একে একে ইন্দ্রাণী ভট্টাচার্য সোমা, সত্যজিত ঘোষ, তারিন, সুমি, ওঙ্কার এর গানের সাথে সঙ্গত করেন রুবেল, স্বদেশ, অভি ও শাহেদ। এরপর গান পরিবেশন করেন আরিফ আবদুল্লাহ, স্বাক্ষর শুভ।

গণসংগীত শিল্পী কফিল আহমেদ বলেন, এই সিআরবি আমাদের হৃদয়। এখানে কোনো হাসপাতাল হবে না। এখানে শুধু জন্মাবে গাছ। প্রকৃতি জাগবে। মানুষের জীবনবোধ জাগবে। তা দেখবে বাংলাদেশ, তা দেখবে বিশ্ববাসী। এই সিআরবি প্রকৃতির, জীবনের, মাটির, জীবনের, অনুভবের ও বিকাশের। এর প্রতি ভালোবসা জানিয়ে গান করছি।

সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার কিছু পরে মঞ্চে আসেন কফিল আহমেদ। তিনি শুরু করেন ‘তুমি মহাসৃষ্টির সহোদর’ গান দিযে। এরপর একে একে ‘গঙ্গাবুড়ি’, ‘আফ্রিকা’ ‘বন্ধু থাকো’ সহ তার বেশ কয়েকটি গান পরিবেশন করেন।

তার পরিবেশনার সাথে সঙ্গতে ছিলেন রুনু, শিশির ও স্বর্ণা। গানে গানে উঠে আসে প্রাণ-প্রকৃতি রক্ষার আকুতি,সিআরবির প্রতি ভালবাসা।ন প্রতিবাদী গণসঙ্গীতে তার সাথে সুর মিলিয়েছেন উপস্থিত শ্রোতারা।
নিউজনাউ/পিপিএন/২০২১

 

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান
%d bloggers like this: