চট্টগ্রামে সোনার চেয়ে নয় গুণ দামি রোডিয়ামের চালান আটক

চট্টগ্রাম ব্যুরো: চট্টগ্রাম বন্দর দিয়ে চীন থেকে দুর্লভ ও মহামূল্যবান ধাতু রোডিয়াম এনেছে টাঙ্গাইলের মির্জাপুরের নাসির ওপাল গ্লাস অ্যান্ড ক্রোকারিজ লিমিটেড। ২০০ গ্রামের সেই চালান আটক করেছে চট্টগ্রাম কাস্টমস হাউস।

আমদানিকারক ঘোষণা দেন, মাত্র ২০০ গ্রাম ওজনের পণ্যটির আমদানি মূল্য সাড়ে ৩৮ হাজার মার্কিন ডলার। ওজন ও দাম দেখে এই পণ্য পরীক্ষা করে খালাসের সিদ্ধান্ত দেয় কাস্টমস কর্তৃপক্ষ। ৬ সেপ্টেম্বর প্রথম কায়িক পরীক্ষা হয়। তাতে দেখা যায়, পণ্যটির ওজন ৮১৫ গ্রাম। আমদানিকারকের ঘোষণা ছিল ২০০ গ্রাম। ঘোষণার চেয়ে তিন গুণ বেশি ওজনের পণ্য পাওয়ায় খালাস স্থগিত করে দেয় কাস্টমস কর্তৃপক্ষ।

কর্মকর্তারা বলছেন, দেশে রোডিয়াম আমদানির এটিই প্রথম চালান। এ ধাতুর প্রতি গ্রাম আন্তর্জাতিক বাজারে ৪৯৭ থেকে ৫০০ ডলারে বিক্রি হয়। অর্থাৎ প্রতি কেজির মূল্যে প্রায় সাড়ে চার কোটি টাকা। অথচ ঘোষণাপত্রে প্রতি গ্রামের দাম উল্লেখ করা হয়েছে ১৯৩ ডলার। ঘোষিত মূল্য বিবেচনা করলে সরকার ১২ লাখ ৪০ হাজার টাকা রাজস্ব পাবে। তবে প্রকৃত মূল্য বিবেচনা করা হলে রাজস্ব আদায়ের পরিমাণ কয়েক গুণ বেড়ে যাবে।

আমদানিকারক কাস্টমস কর্মকর্তাদের কাছে দাবি করেছেন, প্লাটিনাম রোডিয়াম কভার পণ্যের মধ্যে মূল রোডিয়ামের পরিমাণ ২০০ গ্রাম। এটি নাসির ওভাল ক্রোকারিজ কারখানায় পণ্য উৎপাদন কাজে ব্যবহারের জন্য আনা হয়েছে।

নিউজনাউ/পিপিএন/২০২১

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান
%d bloggers like this: