এয়ারপোর্ট-গাজীপুর বিআরটির কাজ শেষ হবে ২০২২ সালে

নিউজনাউ ডেস্ক: বিআরটি এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক শফিকুল ইসলাম জানিয়েছেন, বেসরকারি কোম্পানিগুলোর মাধ্যমে পরিবহন ব্যবস্থাপনা উন্নত করা হবে। এ লক্ষ্যে বেসরকারি কোম্পানিগুলোর সঙ্গে ইতোমধ্যে আলোচনা শুরু হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার (৯ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর উত্তরায় বিআরটির প্রধান কার্যালয়ে তিনি এ কথা বলেন।

শফিকুল ইসলাম বলেন, প্রকল্পের এখন পর্যন্ত সার্বিক অগ্রগতি ৬৩ দশমিক ২৭ শতাংশ। এয়ারপোর্ট থেকে গাজীপুর রুটে বিআরটি’র করিডোরের কাজ ২০২২ সালের ডিসেম্বরে শেষ হবে। প্রকল্পের অধীনে বিআরটি করিডোর ২০ দশমিক ৫ কিলোমিটার, ছয়টি ফ্লাইওভার, ৪ দশমিক ৫ কিলোমিটার এলিভেটেড সড়ক, ১৪১টি সংযোগ সড়ক, ১০টি মার্কেট উন্নয়ন, ১২ কিলোমিটার স্টর্ম ড্রেন, আটলেন বিশিষ্ট টঙ্গী সেতু, গাজীপুর বাস ডিপো, জয়দেবপুর বাস টার্মিনাল ও এয়ারপোর্ট বাস টার্মিনাল এবং পিপিপি ভিত্তিতে বিমানবন্দর রেলস্টেশন এলাকায় মাল্টিমোডাল হাব নির্মাণের কথা রয়েছে। মোট স্টেশন হবে ২৫টি।

রাজধানীর সঙ্গে গাজীপুরের সড়ক যোগাযোগ আধুনিক, দ্রুত এবং আরামদায়ক করতে এয়ারপোর্ট থেকে গাজীপুর পর্যন্ত বিআরটি’র নির্মাণ কাজ চলছে। রাজধানীর মধ্যভাগ পর্যন্ত জনগণকে বিআরটি’র আওতায় আনতে ‘গ্রেটার ঢাকা সাসটেইনেবল আরবান ট্রান্সপোর্ট’ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় মহাখালী হয়ে ফার্মগেট পর্যন্ত এর কাজ বিস্তৃত করা হচ্ছে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, যানজট নিরসনে বিআরটি বিশ্বব্যাপী একটি স্বীকৃত ব্যবস্থা। বিআরটি লাইসেন্স ছাড়া এ রুটে কেউ বাস চালালে ১০ বছরের কারাদণ্ড বা ৫০ লাখ টাকা জরিমানা অথবা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত করার বিধান রয়েছে আইনে। এছাড়া আইনের কোনো বিধান কেউ লঙ্ঘন করলে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দেওয়ার বিধানও রয়েছে।

 

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান
%d bloggers like this: