বনানী কবরস্থানে মায়ের কবরে চিরনিদ্রায় শায়িত ক্যাপ্টেন নওশাদ

নিউজনাউ ডেস্ক: বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের পাইলট ক্যাপ্টেন নওশাদ আতাউল কাইউমের মরদেহ রাজধানীর বনানী কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন করা হয়েছে। বনানী কবরস্থানে মা নাসিমুস সুবা মুকুল ও তার বোন রাবেয়া খাতুন মিমুর কবরেই দাফন করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার (২ সেপ্টেম্বর) বিকেলে ৩টা ১৫ মিনিটে তার মরদেহ দাফন করা হয়।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, এক বছর বয়সে ১৯৮০ সালে মারা যান তার বোন রাবেয়া। ওই বোনের কবরে ২০১২ সালে তার মাকেও সমাহিত করা হয়। আর আজ তাদের কবরে নওশাদকে সমাহিত করা হলো।

জানা যায়, আজকে বিকেল ৩টায় বনানী কবরস্থানে তার দ্বিতীয় জানাজা হয়েছে। জানাজা শেষে তার মায়ের কবরে সমাহিত করা হয়।

নওশাদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে শেষ মুহূর্তে আসেন চিত্রনায়ক ফেরদৌস। তিনি বলেন, ওর জানাজায় অংশ নিতে পারিনি। তাই এখানে আসছি।

এর আগে বৃহস্পতিবার (২ সেপ্টেম্বর) সকাল ৯টা ১০ মিনিটে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বিজি-০২৬ ফ্লাইটে ক্যাপ্টেন নওশাদ আতাউল কাইউমের মরদেহ ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছায়। নওশাদের মরদেহ বহনকারী ফ্লাইটটি রানওয়েতে অবতরণের আগে সেখানে উপস্থিত ছিলেন সহকর্মী পাইলটরা। প্রয়াত সহকর্মীর মরদেহ ফ্লাইট থেকে নিজেরাই নামিয়ে আনেন।

গত ৩০ আগস্ট দুপুরে মারা যান ক্যাপ্টেন নওশাদ। পরে তার মরদেহ নাগপুরের কিংসওয়ে হাসপাতালের মর্চুয়ারিতে ছিল।

 

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান
%d bloggers like this: