নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ইতিহাস বদলানোর হাতছানিতে বাংলাদেশ

নিউজনাউ ডেস্ক: টি-টোয়েন্টিতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে এখনো জয়হীন বাংলাদেশ। ১০ ম্যাচের সবকটিতে হেরেছে টাইগাররা। আজ বুধবার থেকে শুরু হতে যাওয়া ৫ ম্যাচ সিরিজ তাই স্বাগতিকদের সামনে ইতিহাস বদলানোর হাতছানি। অস্ট্রেলিয়াকে ৪-১ ব্যবধানে হারানোর পর স্বাগতিকরা স্বপ্ন দেখতেই পারে কিউইদের হারানোর। আর সেটি করতে পারলে আরেকটি ইতিহাস রচিত হবে।

৫ ম্যাচ সিরিজের প্রথম ম্যাচটি শুরু হচ্ছে বিকাল ৪ টায়। মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়াম থেকে ম্যাচটি সরাসরি সম্প্রচার করবে বিটিভি, গাজী টেলিভিশন ও টি-স্পোর্টস।

হোম কন্ডিশনে এমনিতেই বাংলাদেশ ভালো দল। তার মধ্যে নিউজিল্যান্ড তাদের মূল খেলোয়াড়দের ছাড়াই সফরে এসেছে। এই দলটিতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের কেউ নেই।

অন্যদিকে মুশফিক-লিটনের ফেরায় বাংলাদেশের শক্তিও বেড়েছে। ওপেনিংয়ে এক তামিম ইকবাল বাদে স্বাগতিকরা পূর্ণ শক্তির দল পাচ্ছে। সাম্প্রতিক ফর্ম নিয়েও বাংলাদেশ খুব আত্মবিশ্বাসী।

স্বাগতিকদের বর্তমান পারফরম্যান্স ও মিরপুরের রহস্যময় উইকেটে কিউইদের জন্য কঠিন কিছু অপেক্ষা করছে তাতে সন্দেহ নেই। অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ অবশ্য ভীষণ সতর্ক। প্রতিপক্ষ নিয়ে ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, ‘আমার মনে হয় ওরা খুব ভালো একটা দল। যারা খুব ভালো হোমওয়ার্ক করে এবং খুব ডিসিপ্লিনড। ওরা যে প্ল্যান করে, সেই প্ল্যানেই সব সময় টিকে থাকার চেষ্টা করে। আমাদের ভালো খেলতে হলে শৃঙ্খলভাবে ক্রিকেট খেলতে হবে। আমার মনে হয় আত্মবিশ্বাস নিয়ে খেলাটা গুরুত্বপূর্ণ। মিরপুরের উইকেটের কন্ডিশনে মানিয়ে নেওয়াটাও গুরুত্বপূর্ণ।’

কিউই তরুণ পেসারতো বলেই দিয়েছেন, মিরপুরের কন্ডিশন জয়ের রসদ তারা পেয়ে গেছেন। বেন সিয়ার্স জানিয়েছেন, ‘আমি গতি তুলতে পছন্দ করি। কিন্তু এখানকার কন্ডিশন ভিন্ন। এজন্য স্মার্ট হতে হবে। নেটে বোলিং করে বুঝলাম দ্রুতগতির বলে ব্যাটসম্যানরা চড়াও হতে পারে। এজন্য বৈচিত্র্য থাকতে হবে। মনে হচ্ছে অফ কাটারে সফল হওয়া যাবে।’

মঙ্গলবার মাঠে মিরপুরের উইকেট খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে দেখেছেন দুই দলের খেলোয়াড়রা। সকালে সাকিব-মুশফিক-মাহমুদউল্লাহরা যেন উইকেট ‘মুখস্ত’ করার মিশনে নেমেছিলেন! ডমিঙ্গোকে পাশে নিয়ে সাকিবতো আঙুল দিয়ে পরখ করছেন।

তবে উইকেট যেমনই হোক বাংলাদেশ উইকেট নিয়ে বিন্দুমাত্র ভাবছে না বলে জানিয়েছেন মাহমুদউল্লাহ, ‘উইকেট নিয়ে আমি সবসময় বলি যে উইকেট অনুমান করা কঠিন। আমার মনে হয় পজিটিভ ফ্রেম অব মাইন্ডে যাওয়াটা ভালো। আমরা ভালো উইকেট প্রত্যাশা করবো। সেভাবেই ম্যাচে যাবো। পরে গিয়ে যেটা পাবো, সেভাবে আমাদের মানিয়ে নিতে হবে।’

এদিকে নিউজিল্যন্ডের অধিনায়ক নিশ্চিত করেই বলে গেছেন, অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে যেমন উইকেট হয়েছে, তেমনটাই নাকি তারা আশা করছেন, ‘অস্ট্রেলিয়াকে যে রকম উইকেট দিয়েছিল, আমরা সে রকম উইকেটে প্রস্তুতি নিয়েছি। ক্যাম্পে একই রকম সুবিধা আদায় করে নিয়েছি। দেখা যাক, ছেলেরা কেমন করে। তাদের নিজেদের সামর্থ্য প্রমাণের বড় সুযোগ এটি।’

নিউজনাউ/আরবি/২০২১

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান