সকলের টিকা নিশ্চিতে ‘সপ্তাহে বিশেষ দিনের’ অনুরোধ সুজনের

চট্টগ্রাম ব্যুরো: বয়স্ক ও শারীরিকভাবে অক্ষম ব্যক্তিদের টিকাদানের জন্য সপ্তাহে বিশেষ দিন বরাদ্দ রাখার অনুরোধ জানিয়েছেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের সাবেক প্রশাসক এবং চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি খোরশেদ আলম সুজন।

মঙ্গলবার (২৪ আগস্ট) সকালে নগরের মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল টিকা কেন্দ্রে টিকা গ্রহীতাদের মাঝে পানি এবং মাস্ক বিতরণকালে তিনি এ আহবান জানান।

এসময় তিনি বলেন করোনাভাইরাসের টিকা উদ্ভাবন হওয়ার সাথে সাথে দেশের সকল নাগরিককে বিনামূল্যে টিকা প্রদানের অঙ্গীকার করেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী। শুধু শহর নয় প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলসহ সর্বস্তরের জনগনের কাছে টিকা পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যে হাসপাতাল এবং মাতৃসদন কেন্দ্রসমূহে টিকাকেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছে। কিন্তু দেখা যাচ্ছে মাঠ পর্যায়ে অদক্ষতার কারণে অনেক কেন্দ্রে টিকাগ্রহীতাদের কষ্ট পোহাতে হচ্ছে। যেখানে বসার জন্য নেই কোন সুব্যবস্থা। দীর্ঘ লাইনে ঘন্টার পর ঘন্টা দাড়িয়ে থাকতে গিয়ে বয়োজ্যেষ্ঠরা অসুস্থ হয়ে পড়ছেন। টিকাকেন্দ্রগুলোতে বাথরুমের সংকটও রয়েছে। যেহেতু বর্তমানে স্কুল-কলেজ বন্ধ তাই স্কুল-কলেজসমূহে টিকাকেন্দ্র স্থাপন করলে টিকা গ্রহীতারা স্বস্তি পাবেন।

তিনি করোনা টিকাকেন্দ্রগুলোকে বিভিন্ন স্কুল-কলেজে স্থানান্তর করতে মুঠোফোনে বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক এবং সিভিল সার্জনকে অনুরোধ জানান। বিশেষ করে জেনারেল হাসপাতাল টিকাকেন্দ্রটি নগরের মূল টিকাকেন্দ্র হওয়াতে সেখানে প্রচুর ভিড় লক্ষ্য করা যায়। তাই টিকাকেন্দ্রটি অতিসত্বর সিটি কর্পোরেশনের আন্দরকিল্লা পুরাতন কার্যালয়ে স্থানান্তরের অনুরোধ জানান তিনি।

তিনি বলেন সেখানে পর্যাপ্ত আলো বাতাস এবং বসার ব্যবস্থা করা সম্ভব। ফলে বয়োজ্যেষ্ঠ টিকা গ্রহীতারা স্বাচ্ছন্দ্যে টিকা গ্রহণ করতে পারবেন। নারী ও পুরুষদের বাথরুমের সমস্যাও সমাধান হবে।

তিনি চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের টিকাকেন্দ্রটি ঘুরে ঘুরে দেখেন এবং টিকা গ্রহীতাদের সাথে কুশল বিনিময় করেন। টিকা গ্রহীতাদের কাছে কোন ধরনের সমস্যার সম্মূখীন হচ্ছে কিনা জানতে চাইলে সবাই টিকাকেন্দ্রের প্রশংসা করেন। পরে তিনি টিকা গ্রহীতাদের মাঝে পানি ও মাস্ক বিতরণ করেন।

তিনি মেডিকেল কলেজ টিকাকেন্দ্রের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় সন্তোষ প্রকাশ করেন এবং অভিভূত হয়ে পড়েন। বিশেষ করে সেখানে বয়োজ্যেষ্ঠ এবং শারীরিক অসুস্থদের জন্য আলাদা বুথ স্থাপন করা হয়েছে। যেখানে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে ঐসব টিকা গ্রহীতারা টিকা গ্রহণ করতে পারবেন, যে সুযোগ নগরীর অন্য কোন টিকাকেন্দ্রে নেই।

মেডিকেল কলেজ টিকাকেন্দ্রের সুব্যবস্থাপনার জন্য তিনি পরিচালককে মুঠোফোনে অভিনন্দন জানান। মানবিক পরিবেশে সকল নাগরিক যাতে টিকা গ্রহণ করতে পারে সেদিকে লক্ষ্য রাখার অনুরোধ সুজনের।

তিনি টিকাকেন্দ্রে পর্যাপ্ত খাবার পানি এবং শৌচাগার স্থাপনের দাবী জানান। এক্ষেত্রে ধনাঢ্য নগরবাসীদের এগিয়ে আসার আহবান জানান তিনি।

তিনি আরো বলেন সরকার বিভিন্ন উৎস থেকে নগদ টাকা দিয়ে টিকা সংগ্রহ করছে বিনামূল্যে সকল নাগরিকদের টিকা প্রদানের জন্য। তাই টিকাকেন্দ্রে যারা দায়িত্বে নিয়োজিত আছেন তাদেরকে সরকারের সুফল জনগনের কাছে পৌঁছে দিতে সদা সচেষ্ট থাকতে হবে।

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন নাগরিক উদ্যোগের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হাজী মো. ইলিয়াছ, আব্দুর রহমান মিয়া, সদস্য সচিব হাজী মো. হোসেন, মো. বাবলু, আরাফাতুল মান্নান ঝিনুক, মো. ওমর ফারুক, রেজাউল করিম মিল্লাদ, মনিরুল হক মুন্না, তাইফুল খান, মোসলেহ উদ্দিন, কামরুল হাসান, সাকের উল্ল্যাহ, আলী নেওয়াজ রাকিব, মো. ইমতিয়াজ প্রমূখ।

নিউজনাউ/পিপিএন/২০২১

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান
%d bloggers like this: