‘দ্য লাস্ট মার্সেনারি’ সিনেমায় বাংলাদেশ বিরোধী সংলাপ,দর্শকদের ক্ষোভ

নিউজনাউ ডেস্ক: ফ্রান্সে নির্মিত ভ্যান ড্যাম অভিনীত ‘দ্য লাস্ট মার্সেনারি’ সিনেমাটিতে বাংলাদেশি পণ্যবিরোধী প্রচারণার অভিযোগ উঠেছে। সিনেমাটির ডায়লগেও তার প্রমাণ পাওয়া গেছে। সিনেমাটি নিয়ে বাংলাদেশিদের মধ্যে অনেকেই মন্তব্য করেছেন, ডেভিড চারহন পরিচালিত ফ্রেঞ্চ ভাষার এ ছবির মাধ্যমে বাংলাদেশের রফতানি পণ্যকে নিম্নমানের বলে প্রচার চালানো হচ্ছে।

 

নেটফ্লিক্সে জনপ্রিয়তা অর্জন করা এ সিনেমাটি ৩০ জুলাই মুক্তি পায়। ছবিটির ১ ঘণ্টা ৪১ মিনিটে শুরু হওয়া দৃশ্যে দেখা যায়, একজন অভিনয়শিল্পী বলছেন, ‘হ্যাঁ, এটা বুলেটপ্রুফ’। প্রত্যুত্তরে আরেকজন বলেন, ‘এটা মেড ইন ফ্রান্স। তবে যদি এটি বাংলাদেশ থেকে আসে তাহলে আমি ধ্বংস হয়ে যাবো (নিম্নমানের)।’

কানাডা প্রবাসী একজন বাংলাদেশি সাংবাদিক মুহম্মদ খান সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লিখেছেন, ‘বিষয়টাকে নেহাত সিনেমার একটা ডায়লগ মনে করলে চরম বোকামি হবে। এটা খুব প্রচ্ছন্নভাবে করা হয়েছে বলেই ধরে নেওয়া ভালো। এবং বাংলাদেশের বা বাংলাদেশে তৈরি পণ্যের নেগেটিভ ব্র্যান্ডিংয়ের জন্য এসব মুভি যে মোক্ষম অস্ত্র তা চোখে আঙুল দিয়ে দেখানোর প্রয়োজন আছে বলে মনে হয় না!’
আরেক বাংলাদেশি লিখেছেন, ‘আমরা বুলেটপ্রুফ কিছু তৈরি করি না। তারপরেও এর সাথে বাংলাদেশের নাম জুড়ে নিম্নমানের প্রমাণ করাটা সত্যিকার অর্থে একটা গভীর চক্রান্ত। বিশেষ করে বাংলাদেশের পোশাক, চামড়া, ওষুধ এবং অন্যান্য রফতানিযোগ্য পণ্য ব্যবসা ক্ষতিগ্রস্ত করার উদ্দেশ্যে এসব করা হচ্ছে।’

নেটফ্লিক্স বা নির্মাণ কর্তৃপক্ষ থেকে এমন ঘটনা ও প্রতিবাদের পরেও কোন প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

 

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান
%d bloggers like this: