এনবিআরের কড়া নজরে রিটার্ন না দেয়া ৩১ লাখ করদাতা

নিউজনাউ ডেস্ক: রিটার্ন দাখিলে আইনের বাধ্যবাধকতার মধ্যেও ৩১ লাখ ৬৯ হাজার ৩৫৫ জন করদাতা গত অর্থবছরে কেন তাদের আয়কর বিবরণী দাখিল করেননি, সে বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে মাঠে নামছে এনবিআর। গেলো ২০২০-২১ অর্থবছরে নিবন্ধিত ৫৬ লাখ করদাতার মধ্যে ৫৬.৬০ শতাংশ করদাতা আয়কর বিবরণী (রিটার্ন) দাখিল করেননি।

 

তাই প্রাথমিক পদক্ষেপ হিসাবে এনবিআরের আয়কর বিভাগের আওতায় দেশের সব কর অঞ্চল থেকে কর শনাক্ত নম্বরধারী (টিআইএন) ব্যক্তিদের কারণ দর্শানোর নোটিশ ইস্যু করার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিচ্ছে বলে জানা গেছে।

যদিও ২০২০-২১ অর্থবছরে দেশে মোট ২৪ লাখ ৩০ হাজার ৬৪৫ জন করদাতা আয়কর রিটার্ন দাখিল করেন। যা তার আগের অর্থবছরের তুলনায় প্রায় ১৫ শতাংশ বেশি। এনবিআরের তথ্যানুসারে ২০১৯-২০ অর্থবছরে রিটার্ন দাখিলকারীর সংখ্যা ছিল ২১ লাখ ১৪ হাজার ৩৮৫ জন।

 

এ বিষয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এনবিআরের ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা জানান, রিটার্ন দাখিল না করা ব্যক্তিদের শনাক্ত করে নোটিশ দেওয়াসহ আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার বিষয়টি ভাবছে এনবিআর। এছাড়া আগামীতে অনলাইন রিটার্ন দাখিলের পদ্ধতিকে আরও সহজ করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি। প্রথম পর্যায়ে এনবিআরের লক্ষ্য থাকবে ব্যবসায়ী হিসাবে যারা টিআইএন নিয়েছেন কিন্তু নিয়মিত রিটার্ন দাখিল করছেন না তাদেরকে এর আওতায় আনা। সাধারণত অধিকাংশ চাকরিজীবী রিটার্ন দাখিল করে থাকেন। কারণ তাদের বেতনের সঙ্গে আয়কর রিটার্ন দাখিলের একটি অফিসিয়াল সম্পর্ক রয়েছে।

এ বিষয়ে এনবিআরের সদস্য (আয়কর নীতি) মো. আলমগীর হোসেন জানান, আমাদের রিটার্ন দাখিলের সংখ্যা ও রাজস্ব আহরণ বেড়েছে। কাঙ্ক্ষিত পর্যায়ে হয়তো বাড়েনি। টিআইএন নেওয়ার পরও যারা রিটার্ন দাখিল করেননি তাদের বিষয়ে আইনেই ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। এনবিআর আইন অনুসারেই ব্যবস্থা নেবে।

নিউজনাউ/পিপিএন/২০২১
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান
%d bloggers like this: