দিল্লিতে শিশুকে ধর্ষণের পর জীবন্ত পুড়িয়ে হত্যা

নিউজনাউ ডেস্ক: ভারতের রাজধানী দিল্লিতে নয় বছরের একটি বাচ্চা মেয়েকে শ্মশানঘাটে ধর্ষণ করার পর ধর্ষণকারীরা জোর করে তার মরদেহ জ্বালিয়ে দিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবারের এক অনলাইন প্রতিবেদনে রোমহর্ষক এই খবর জানিয়েছে বিবিসি।

নিহতের পরিবার ও এলাকার বাসিন্দারা এই ঘটনার প্রতিবাদে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করলে ঘটনার প্রায় চব্বিশ ঘন্টা পর দিল্লি পুলিশ অভিযুক্ত এক পুরোহিত ও তার তিন সঙ্গীকে গ্রেপ্তার করেছে। এই ঘটনার দ্রুত বিচার নিশ্চিতের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে দিল্লি সরকার।

তবে বিভিন্ন দলিত সংগঠন বলছে, ধর্ষণের শিকার শিশুটি যেহেতু দলিত বা নিম্নবর্ণীয় সমাজের তাই এই ঘৃণ্য অপরাধের বিরুদ্ধে তেমন জোরালো প্রতিবাদ লক্ষ্য করা যাচ্ছে না।

দক্ষিণ-পশ্চিম দিল্লির সেনানিবাস এলাকার পাশ ঘেঁষে রয়েছে একটি বাল্মিকী বস্তিতে ঘটেছে এই ঘটনা। যে নৃশংস ঘটনার বিরুদ্ধে ওই এলাকার বাসিন্দারা সোমবার থেকে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেছেন, সেটি ঘটেছিল তার আগের দিন রাতেই।

নিহত শিশুর মা বলছিলেন, ‘আমরা সেদিন গ্রামে গিয়েছিলাম আর আমাদের বাচ্চা শ্মশানঘাটের ওয়াটার কুলার থেকে খাবার জল নিতে গিয়েছিল। শ্মশানের মন্দিরের পুরোহিত বা পন্ডিতজি আমাদের ফোন করে হঠাৎ খবর দেয়, কুলার থেকে জল নিতে গিয়ে আমাদের মেয়ে নাকি কারেন্ট খেয়ে মারা গেছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘রাতেই তাড়াহুড়ো করে সৎকার করা হয়। কিন্তু আমাদের বিশ্বাস ‘পন্ডিতজি’ আর ওর দলবল আমাদের মেয়েকে জীবন্ত পুড়িয়ে দিয়েছে।’

নিউজনাউ/এসএ/২০২১

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান
%d bloggers like this: