উপমন্ত্রী নওফেলের নামে প্রতারণা, সেই শিহাব গ্রেপ্তার

চট্টগ্রাম ব্যুরো:  কখনো তিনি শিক্ষা উপমন্ত্রী নওফেলের ‘এপিএস’ ,আবার কখনো তিনি ‘কন্ট্রাক্ট’ নেন আসামিকে জামিনে মুক্ত করার। সবকিছুতেই ব্যবহার করে শিক্ষা উপমন্ত্রী নওফেলের নাম। এই করেই হাতিয়ে নেন টাকা। এর আগেও এইসব কাজ করে একবার গ্রেপ্তার হয়েছিলেন। শিক্ষা-উপমন্ত্রী নাম ব্যবহার করে প্রতারণা করা সেই যুবক ফের গ্রেপ্তার হয়েছেন।

গ্রেপ্তার মো. শিহাব উদ্দিন সিদ্দিকী ওরফে রিহান শিহাব (২৬) ফটিকছড়ি উপজেলার রোসাংগিরি ইউপির তাহের উদ্দীন সিদ্দিকীর ছেলে। সোমবার (২ আগস্ট) রাত সাড়ে ১০টায় রিয়াজউদ্দীন বাজারের সামনে থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পুলিশ জানান, ২০১৮ সালে সাইফুল ইসলাম নামে এক ব্যবসায়ীর সাথে পরিচয় হয় প্রতারক শিহাবের। সেসময় শিহাব কাতারে চাকরির ব্যবস্থা করে দেবে বলে ব্যবসায়ী সাইফুলের কাছ থেকে পাসপোর্টের ফটোকপি নেয়। কিন্তু ভিসা দিতে না পারায় সাইফুল আর কাতার যেতে পারেনি। তারপর থেকে শিহাবের সাথে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

 

কিন্তু চলতি বছরের ২৭ জুলাই স্টেশন রোডের মোটেল সৈকত থেকে সাইফুলকে ফোন করে ১১ হাজার টাকা বকেয়া বিল দিতে বলে। এতে তিনি অবাক হয়ে কিসের বিল জানতে চান। পরে জানতে পারেন তার পাসপোর্ট ব্যবহার করে শিহাব হোটেলে দুইদিন অবস্থান করে হোটেল ত্যাগ করে। এরপর ২৯ জুলাই রাত সাড়ে ১০টায় হোটেল রেডিসন ব্লুতেও একই ঘটনা ঘটে। ওইদিন তিনি হোটেল রেডিসনে গিয়ে জানতে পারেন তার পাসপোর্ট দেখিয়ে ১ দিন হোটেলে অবস্থান করেছে। কিন্তু সাইফুল যাওয়ার আগে শিহাব বিল পরিশোধ করে চলে যায়। পরে সাইফুল এ ঘটনায় একটি মামলা দায়ের করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নেজাম উদ্দীন জানান, গতকাল সোমবার রাত সাড়ে ১০টায় রিয়াজউদ্দীন বাজারের সামনে থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এর আগেও সে শিক্ষা উপ-মন্ত্রীর নাম ব্যবহার করে এক নারীর সাথে প্রতারণা করেছিল। সেসময় তাকে আমরা গ্রেপ্তার করেছিলাম। সেই মামলায় জামিনে বের হয়ে সে আবার প্রতারণা শুরু করেছে। তাকে আজ আদালতে পাঠানো হয়েছে।

নিউজনাউ/পিপিএন/২০২১

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান
%d bloggers like this: