স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী জবা ফুল

নিউজনাউ ডেস্ক: জবা ফুল শুধু সৌন্দর্যেই ছড়াই না ,এর আছে অনেক গুনাগুণ। সাধারণত সাদা, লাল, গোলাপী ও হলুদ রঙের জবা ফুল দেখা যায়। বৈজ্ঞানিক ক্যারলাস লিনেয়াস জবা ফুলের নাম দেন হিবিস্কাস রোসা-সিনেন্সিস। জবা গাছের প্রতিটি অংশকেই বিভিন্নভাবে উপকারী। জবা ফুল, শিকড়, পাতা ও ছালকে বিভিন্ন ঔষধিগুণের জন্য ব্যবহার করা হয়। অসাধারণ সুন্দর হওয়ার পাশাপাশি এই গন্ধবিহীন জবা ফুল স্বাস্থ্যের ক্ষেত্রেও অনেক উপকারী ভূমিকা পালন করে। জেনে নিন গুণবতী জবা ফুলের কিছু গুণের কথা।

১/ জবা মেয়েদের পিরিয়ডের সমস্যায় খুবই উপকারী। নারীদের অনিয়মিত পিরিয়ডের ক্ষেত্রে এক গ্রাম দারুচিনির সঙ্গে দুই-তিনটি পঞ্চমুখী জবার কুঁড়ি বেটে শরবত করে পাঁচ-সাত দিন খেলে পিরিয়ড স্বাভাবিক হয়ে যাবে।

২/ জবা ফুলের তৈরি চা যা ক্যান্সারের মতো মরণব্যাধি রোগকে প্রতিরোধে সহয়তা করে। এছাড়া যাদের অতিরিক্ত ওজন রয়েছে তারা জবা ফুলের চা খেতে পারেন। মেদ ঝড়ে যেতে শুরু করবে এবং ওজন ও কমিয়ে দিনে। এতে শরীর ও সুস্থ থাকবে।

৩/ মাত্রাতিরিক্ত প্রস্রাব হলে এক চা চামচ পরিমাণ জবা গাছের ছালের রস পানিসহ পাঁচ-সাত দিন খেলে উপকার পাবেন।

৪/ চোখ ওঠা রোগ দূর করতে জবা ফুল বা পাতা বেটে প্রলেপ দিলে ভাল উপকার পাওয়া যায়।

৫/ মুখের যত্নের ক্ষেত্রে জবা অত্যন্ত উপকারী।জবা ত্বকের বহু সমস্যার সমাধান এবং মুখের তারুণ্য ধরে রাখতে সক্ষম। কালো দাগ, ছোপ ও ব্রণ থেকে দূর করতে জবা সহায়তা করে।

৬/ জবার ফুল ও পাতা চুল পড়া ঠেকানো, চুল পড়া কমিয়ে চুলের ঘনত্ব বাড়ানো, কালো উজ্জ্বল চুল, লম্বা চুল ইত্যাদি চুলের যেকোনো সমস্যা সমাধানে বিশেষভাবে কাজ করে । এমনকি চুলের খুশকি হওয়া থেকে রক্ষা, সাদা চুল উঠা কমানো, সুস্থ্য স্ক্যাল্পে নতুন চুল উঠা ইত্যাদি সমস্যা রোধ করতেও জবা ফুলের ভূমিকা অনেক। এছাড়া হেয়ার কন্ডিশনার, হেয়ার শ্যাম্পু তৈরিতেও জবা ফুল ব্যবহৃত হয়।

যার ভালো দিক আছে তার আবার কিছু খারাপ দিক ও আছে। তাই নিজের শারীরিক অবস্থা বুঝে নিয়ম ও প্রকার জেনে জবা ফুল ব্যবহার করে উপকৃত হবেন।

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান
%d bloggers like this: