ওজন কমানোর জন্য খেতে পারেন ‘হেলদি স্ন্যাকস’

নিউজনাউ ডেস্ক: লকডাউনে বাসায় বন্দি অবস্থায় থাকতে থাকতে অনেকেরই ওজন বৃদ্ধি পেয়েছেন। ওজন কমানোর জন্যে অনেকেই অনেক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। কেউ কেউ বাসায় শরীরচর্চার মাধ্যমে চেষ্টা করছেন ওজন কমানোর। আবার কেউ কেউ পছন্দের খাবার বাদ দিয়ে চেষ্টা করছেন। তারপরও সুস্থ থাকার জন্য ওজন কমানোর কোন বিকল্প নেই। ওজন কমানোর চাবিকাঠি লুকিয়ে রয়েছে হালকা পুষ্টিকর । যা আপনার ক্ষুধা মিটাবে আবার এনার্জিও জোগাবে। আবার এই স্ন্যাকস গুলো অতিরিক্ত খাওয়া যাবে না এতে করে হিতে বিপরীত হতে পারে। জেনে নিন ওজন কমানোর কিছু হেলদি স্ন্যাকস।

১/ দইঃ দই সবচেয়ে ভাল একটি স্ন্যাকস। যা আপনার তৃপ্তি মিটাবে এবং পুষ্টির চাহিদাও পূরণ করবে।

২/ ছোলাঃ স্ন্যাকস হিসেবে খাওয়ার জন্য ছোলা বা মটর খুবই ভাল। একমুঠো খেলেই পেট ভরে যায় এবং এনার্জি পাওয়া যায়। এটা ডায়াবেটিকদের জন্যও উপকারি।

৩/পপকর্নঃ ভুট্টা থেকে হয় পপকর্ন যা খুবই স্বাস্থ্যকর। খান। বাড়িতে প্লেন পপকর্ন বানিয়ে খেতে পারেন।এই স্ন্যাকস খুব সহজেই পেট ভরিয়ে দেবে।

৪/ আমন্ডঃ আমন্ড হচ্ছে স্ন্যাকস এর মধ্যে উত্তম এবং মুখরোচক। একটু বাদাম খেলেই অনেকক্ষণ পেট ভরা থাকে।

৫/ ডার্ক চকোলেটঃ ডায়েটিশিয়ানরা বলেন প্রতি দিন ডায়েটে অল্প হলেও ডার্ক চকোলেট রাখুন। ডার্ক চকোলেট রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে, খিদেও মিটিয়ে দেয়।

৬/ওটসঃ ওটস একটি হেলদি স্ন্যাকস। ওটস যেমন পুষ্টিকর, তেমনই পেট ভরিয়ে ঘুম আনতে সাহায্য করবে।

৭/ ড্রাই ফ্রুটসঃ ড্রাই ফ্রুটস পুষ্টিকর স্ন্যাকস যা আপনাকে এনার্জি জোগাবে। শুধু তাই নয় ড্রাই ফ্রুটস একটি মুখরোচক খাবারও বটে।

ওজন নিয়ে খুব বেশি টেনশন না করে একটু সচেতন হলেই হয়ে যায়। বিভিন্ন ডায়েট এবং ওয়ার্কআউট এর মাধ্যমে আপনি আপনার লক্ষ্য অর্জন করতে পারেন।

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান
%d bloggers like this: