‘মুনাফার লালশায় সিআরবি ধ্বংসের পাঁয়তারা চলছে‘

চট্টগ্রাম ব্যুরো: নগর বিএনপি’র আহবায়ক ডা. শাহাদাত হোসেন বলেছেন, চট্টগ্রামের ফুসফুস খ্যাত সিআরবির প্রাকৃতিক সৌন্দর্যমণ্ডিত পরিবেশকে ধ্বংস করার যে অপচেষ্টা চলছে তা প্রতিহত করতে হবে। সিআরবির ঐতিহ্য সৌন্দর্যমণ্ডিত এলাকা রক্ষার আন্দোলনে সকল পরিবেশবিদ সহ দল-মত নির্বিশেষে এগিয়ে আসতে হবে। চট্টগ্রাম রেলওয়ে জায়গার কোন অভাব নেই। কিন্তু তারপরও কেন রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ এত জায়গা থাকতে সিআরবিতে ৬ একর জায়গা বরাদ্দ দিল তা এখন চট্টগ্রামবাসী জানতে চায়?

মঙ্গলবার (৩ আগস্ট) দুপুরে সিআরবি রক্ষায় গণঅধিকার ফোরাম ও পরিবেশ সুরক্ষা আন্দোলন (বাপসা) এর উদ্যোগে প্রতিবাদী অবস্থান ও মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সিআরবি সাত রাস্তার মোড়ে আয়োজিত এই সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন চট্টগ্রাম গণঅধিকার ফোরামের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম।

ডা. শাহাদাত বলেন, আমরা আগেও স্পষ্ট ভাষায় বলে আসছি হাসপাতাল চাই,কিন্তু সিআরবিতে না। যদি একান্তই হাসপাতাল করতে হয় তবে বর্তমান যে বক্ষব্যাধি হাসপাতাল আছে সেই হাসপাতালটিকে আধুনিকায়ন করে কোভিড হাসপাতাল করুণ। কোভিড এর কারনে এখন কোন হাসপাতালের বেড খালি নেই। তাই যদি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে ৫০ থেকে ১০০ কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়ে সিআরবির বক্ষব্যাধি হাসপাতালটিকে আধুনিকায়ন করে পূর্ণাঙ্গ একটি কোভিড হাসপাতাল করে তাতে চট্টগ্রামবাসী উপকৃত হবে। ৎ

ডা. শাহাদাত হোসেন আরো বলেন, তথাকথিত উন্নয়ন প্রকল্প ও বাণিজ্যিক প্রকল্পের গ্রাসে ইতিমধ্যেই চট্টগ্রাম শহরে সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত স্থান, পার্ক, খেলার মাঠ ধ্বংস করা হয়েছে। এখন অবশিষ্ট সি.আর.বি এলাকাও আজ মুনাফার লালশায় ধ্বংস করার পাঁয়তারা চলছে। উন্নয়ন প্রকল্পের নামে জনগণের ট্যাক্স, ভ্যাট এর টাকা আত্মসাৎ করছে সরকার। দুর্নীতি ও আমলাতান্ত্রিকতার কারণে সরকারের প্রকল্প গুলোর আজ বেহাল দশা।

চট্টগ্রাম গণঅধিকার ফোরামের মহাসচিব এম এ হাশেম রাজুর সঞ্চালনায় আরো বক্তব্য রাখেন একরামুল করিম, গণঅধিকার ফোরামের মহাসচিব এম এ হাশেম রাজু, এডভোকেট মফিজ হক ভূঁইয়া, বাপসা এর যুগ্ম আহবায়ক এস এম কামরুল ইসলাম, উপস্থিত ছিলেন, গণঅধিকার ফোরাম-চট্টগ্রাম মহানগর সভাপতি আবু মোহাম্মদ হোসেন চৌধুরী, রাজনীতিক মোহাম্মদ জাকির হোসেন, পরিবেশ বিষয়ক সংগঠন ইকো ফ্রেন্ডস এর সভাপতি উত্তম কুমার আচার্য্য, গণঅধিকার ফোরাম এর যুগ্ম মহাসচিব মোহাম্মদ সালাহ উদ্দিন, সাংবাদিক আলমগীর নূর, ক্যাব নেতা জানে আলম, এসডিজি ইয়ুথ ফোরামের সভাপতি নোমান উল্লাহ বাহার, যুবনেতা আসাদুর রহমান টিপু, বাংলাদেশ সুরক্ষা আন্দোলন (বাপসা) এর যুগ্ম আহবায়ক এস এম কামরুল ইসলাম, সাজ্জাদ হোসেন ভূঁইয়া, যুবনেতা মোহাম্মদ মামুন, আকতার হোসেন, রাজনীতিক মহিউদ্দিন আজম, আসাদুর রহমান টিপু, কবি নূরুন্নবী, ছাত্রনেতা সামিয়াত আমিন জিসান প্রমুখ।

নিউজনাউ/পিপিএন/২০২১

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান
%d bloggers like this: