বিজেপিকে বিদায়ের ঘোষণা দিলেন বাবুল সুপ্রিয়

নিউজনাউ ডেস্ক: ভারতের লোকসভা সদস্য এবং সদ্য কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা থেকে বাদ পড়া বাবুল সুপ্রিয় ক্ষমতাসীন দল বিজেপি ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছেন।

পশ্চিমবঙ্গের এই জনপ্রিয় গায়ক শনিবার এক ফেসবুক পোস্টে দল ছাড়ার ঘোষণা দিয়ে লেখেন, ‘চললাম… আলবিদা…।’

তবে এখনই তিনি কোনো দলে যোগ দিচ্ছেন না জানিয়ে বাবুল লেখেন, ‘সোশ্যাল ওয়ার্ক করতে গেলে রাজনীতিতে না থেকেও করা যায়। নিজেকে একটু গুছিয়ে নিই আগে, তারপর… হ্যাঁ সাংসদ পদ থেকেও নিশ্চিতভাবে ইস্তফা দিচ্ছি।’ বাবুল আসানসোলের লোকসভা সদস্য।

দীর্ঘ ফেসবুক পোস্টে রাজনীতি ছাড়ার কারণ ব্যাখ্যা করেছেন বাবুল। সেখানে ছত্রে ছত্রে তার অভিমান ফুটে উঠে।

বাবুল লিখেছেন, ‘২০১৪ আর ২০১৯ এর মধ্যে অনেক ফারাক। তখন শুধু বিজেপির টিকিটে আমি একাই ছিলাম। কিন্তু আজ বাংলায় বিজেপিই প্রধান বিরোধী দল। আজ পার্টিতে যেমন অনেক নতুন তরুণ তুর্কি নেতা আছেন, তেমনই অনেক প্রবীণ বিদগ্ধ নেতাও আছেন। এদের নেতৃত্বে দল এখান থেকে অনেক দূর এগিয়ে যাবে—এটা বলাই বাহুল্য।’

পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচনে তার আসানসোল পার্লামেন্টারি এলাকার বেশিরভাগ বিধানসভা কেন্দ্রে বিজেপি হেরেছে। তিনি নিজেও টালিগঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রে ভোটে হেরেছেন। এই অবস্থায় সম্প্রতি কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা থেকে বাদ পড়া নিয়ে শীর্ষ নেতৃত্বের সঙ্গে তার মতপার্থক্য বাড়ছিল। বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের সঙ্গে তার বাকবিতণ্ডা সংবাদে আসছিল বারবার।

বাবুল সুপ্রিয় তার ফেসবুক পোস্টে হেমন্ত মুখোপাধ্যায়ের গাওয়া একটি জনপ্রিয় গান ‘এক গোছা রজনীগন্ধা হাতে নিয়ে বললাম’ জুড়ে দিয়ে লিখেন, ‘বেশকিছু সময় তো থাকলাম। কিছু মন রাখলাম, কিছু ভাঙলাম। কোথাও আপনাদের হয়তো আমার কাজে খুশি করলাম। কোথাও নিরাশ, হতাশ করলাম। মূল্যায়ন আপনারাই নয় করবেন।’

বাবুল লেখেন, ‘বিগত কয়েকদিনে বারবার মাননীয় অমিত শাহজি ও মাননীয় নাড্ডাজির কাছে রাজনীতি ছাড়ার সংকল্প নিয়ে গেছি এবং আমি তাদের কাছে চিরকৃতজ্ঞ যে প্রতিবারই ওরা আমাকে অনুপ্রাণিত করে ফিরিয়ে দিয়েছেন। আমি তাদের এই ভালোবাসা কোনদিন ভুলবো না। তাই আবার তাদের কাছে গিয়ে একই কথা বলার ধৃষ্টতা আর আমি দেখাতে পারব না। বিশেষ করে, আমার আমি কী করতে চাই তা যখন আমি অনেকদিন আগেই ঠিক করে ফেলেছি। কাজেই আবার একই কথা বলতে গেলে তারা ভাবতেই পারেন, আমি পদের জন্য দরাদরি করছি। আর তা যখন একেবারেই সত্য নয় তখন একেবারেই চাই না, তাদের মনের ঈশান কোণেও সেই সন্দেহের উদ্রেক হোক, এক মুহূর্তের জন্য হলেও।’

মন্ত্রিত্ব যাওয়ার সঙ্গে দল ছাড়ার সম্পর্ক আছে আছে জানিয়ে বাবুল বলেন, ‘কিছুতো আছে, তঞ্চকতা করতে চাই না। তাই সেই প্রশ্নের উত্তর দিয়ে গেলে সঠিক হবে- আমাকেও তা শান্তি দেবে।’

লোকসভার সদস্য পদ ছাড়ার পাশাপাশি সরকারি বাড়ি ছেড়ে দেবেন। মাইনেও নেবেন না বলে জানিয়েছেন গায়ক রাজনীতিক বাবুল সুপ্রিয়।

নিউজনাউ/এসএ/২০২১

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান
%d bloggers like this: