চট্টগ্রামে ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে আক্রান্ত রোগীর ওষুধ পাচ্ছে না সন্তানরা

চট্টগ্রাম ব্যুরো: গত ৫ দিন আগে করোনায় মারা গেছেন স্বামী। এরপর ৪ দিন ধরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকা সেই মহিলার শনাক্ত হয়েছে ব্ল্যাক ফাঙ্গাস। তবে ঢাকা চট্টগ্রাম এক করেও এই রোগের ওষুধ পাচ্ছে না মহিলার সন্তানরা।

চমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ওই রোগীর ছেলে নিউজনাউকে বলেন, ‘চমেক হাসপাতালের ডাক্তাররা অ্যামফোটেরিসিন বি ইনজেকশনটি মায়ের জন্য দিয়েছেন। আমরা ৪ দিন ধরে ঢাকা চট্টগ্রাম সবখানে খুঁজেছি কিন্তু ঔষধটা পাচ্ছিনা।’

হাসপাতাল থেকে ঔষধটি সংগ্রহের বিষয়ে সহযোগিতার কোন আশ্বাস পেয়েছেন কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘প্রথমে তারা বলেছিলেন যদি সরকারিভাবে এই ঔষধ থাকে উনারা সংগ্রহ করবেন। এখন বোধহয় সেখানেও পাওয়া যাচ্ছেনা।’

রোগীর ছেলে মো. বেলাল হোসাইন বলেন, ‘পাঁচদিন আগে আমি আব্বাকে হারিয়েছি। এখন আমার মা জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে। তার জন্য এমপোটেরিসিন-বি ইনজেকশনটি খুঁজছি। কিন্তু তা পাওয়া যাচ্ছেনা। প্লিজ আপনারা এই ওষুধের সন্ধান দিন। যত টাকা লাগে আমরা দিব। আমার মাকে বাঁচাতে চাই।’

প্রসঙ্গত অ্যামফোটেরিসিন বি একটি এন্টিফাঙ্গাল ওষুধ যা মারাত্মক ছত্রাকের সংক্রমণ এবং লেশম্যানিয়াসিসের জন্য ব্যবহৃত হয়। অ্যামফোটেরিসিন-বি প্রাণঘাতী প্রোটোজোয়ান সংক্রমণের জন্য যেমন ভিসারাল লেশম্যানিয়াসিস [১১] এবং প্রাথমিক অ্যামোবিক মেনিনজোনেন্সফালাইটিস হিসাবে ব্যবহৃত হয়। এটি যেসব ছত্রাক সংক্রমণ চিকিত্সার জন্য ব্যবহৃত হয় সেগুলোর মধ্যে রয়েছে— শ্লেষ্মাবিধি, অ্যাস্পেরিলিসোসিস, ব্লাস্টোমাইকোসিস, ক্যান্ডিডিয়াসিস, কোক্সিডাইওডোমাইকোসিস এবং ক্রিপ্টোকোকোসিস অন্তর্ভুক্ত।

বাণিজ্যিকভাবে এই ওষুধটি Fungilin, Fungizone, Abelcet, AmBisome, Fungisome, Amphocil, Amphotec, Halizon নামে পরিচিত।

নিউজনাউ/পিপিএন/২০২১

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
1
+1
0
আপনার মতামত জানান
%d bloggers like this: